সব খবর সবার আগে।

ট্রেন দাঁড়াবে না বিধাননগর স্টেশনে, ভিড় এড়াতে সিদ্ধান্ত রেল কর্তৃপক্ষের, চিন্তায় দর্শনার্থীরা

নাইট স্পেশাল ট্রেন তো আগেই বাতিল করা হয়েছে। এবার নবমীর দিন এও ঘোষণা করা হল যে বিধাননগর স্টেশনে কোনও ডাউন ট্রেন দাঁড়াবে না। অর্থাৎ শিয়ালদহগামী ট্রেনগুলি দাঁড়াবে না বিধাননগর স্টেশনে।

এও জানা গিয়েছে যে এই সিদ্ধান্ত বলবৎ থাকবে শুক্রবার ভোর চারটে পর্যন্ত। আর এর জেরে বেশ মন খারাপ দর্শনার্থীদের। কারণ এই স্টেশনে নেমেই শ্রীভূমি স্পোর্টিং ক্লাবের বুর্জ খলিফা দেখতে যাওয়ার পরিকল্পনা ছিল অনেকের। এর জেরেই বাড়ছে ভিড়।

রেলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, দুর্গাপুজোয় অতিরিক্ত যাত্রীর চাপ নিয়ন্ত্রণ করতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এদিকে, গতকাল, বুধবার মধ্যরাতেই অতিরিক্ত ভিড়ের কারণে শ্রীভূমি স্পোর্টিং ক্লাবের ঠাকুর দেখা বন্ধ করে দেওয়া হয়।

আজ মহানবমীতে এখানে দর্শনার্থীদের নো–এন্ট্রি করা হয়েছে। যাতে ভিড় না বাড়ে। ইতিমধ্যেই কলকাতায় করোনাভাইরাস ডবল সেঞ্চুরি করেছে। তাই এই বাড়তি সতর্কতা বলে মনে করা হচ্ছে।

এই বিষয়ে পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক একলব্য চক্রবর্তী সংবাদমাধ্যমকে বলেন, “ভিড়ের কারণে কোভিড পরিস্থিতি খারাপ হচ্ছে। আজ বিকেল ৪টে থেকে শুক্রবার ভোর ৪টে পর্যন্ত কোনও ডাউন ট্রেন বিধাননগর স্টেশনে দাঁড়াবে না বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে”।‌ বিধাননগর স্টেশনের এমন অস্বাভাবিক ভিড় রেলের কাছে চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই কারণেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

বিধাননগরের অন্যান্য দুর্গাপুজোর মধ্যে অন্যতম হল শ্রীভূমির পুজো। সেখানে বুর্জ খলিফার আদলে তৈরি মণ্ডপ দেখতে লক্ষ লক্ষ মানুষ ভিড় জমিয়েছেম। এর জেরে করোনা সংক্রমণ বাড়ার সম্ভাবনা। বিধাননগর স্টেশন হয়েই এই মণ্ডপে আসা সবচেয়ে সহজ পথ। তাই এই ভিড়কে ঠেকাতে পথকেই বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ শিয়ালদহগামী ডাউন ট্রেন দাঁড়াবে না। এর ফলে কেউ নেমে বুর্জ খলিফা দেখতে যেতেও পারবেন না।

You might also like
Comments
Loading...