কলকাতা

BREAKING: বাঙালির মন জিততে আসছেন তিনি! ষষ্ঠীতে সল্টলেকের পুজোর বোধনে নরেন্দ্র মোদী, কিন্তু কোন পুজো? জেনে নিন-

বিধানসভা ভোটের আর বাকি মাত্র হাতেগোনা ৬ মাস। বাংলার মসনদ জিততে উঠে পড়ে লেগেছে শাসক এবং বিরোধী দুই পক্ষই। চাপ হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছেন দুই দলের নেতা-নেত্রীরাই। পরিবর্তনের যুগে বাংলার ছোট-বড় দুর্গাপুজোর সঙ্গে জড়িয়ে গিয়েছে শাসক দলের নেতানেত্রীদের নাম। এবারই দুর্গাপুজো কমিটিগুলিকে ৫০,০০০ টাকা করে দেওয়ার ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamta Banerjee)।

মনে করিয়ে দিয়েছেন, অন্য রাজ্যে পুজো বন্ধ হলেও এখানে তা হয়নি। আর তাই করোনা আবহেও পার্বণই হয়ে উঠেছে জনসংযোগের হাতিয়ার। আর তাই মোক্ষম সময়ে বাংলায় বিজেপির ঘাঁটি আরও একটু শক্ত করতে বাঙালির সবচেয়ে বড় মিলন উৎসবে শামিল হতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)।

দুর্গা পুজা উপলক্ষে শুধু ভাষণই নয়, ষষ্ঠীতে দেবীর বোধনও করবেন প্রধানমন্ত্রী। দিল্লি থেকে ভার্চুয়ালি উদ্বোধন করবেন পুজোমণ্ডপের। কিন্তু কোন পুজোর উদ্বোধনে আসছেন তিনি? বিস্তর ছোটাছুটির পর রাজ্য বিজেপি নেতারা অবশেষে ইস্টার্ন জোনাল কালচারাল সেন্টারের কথাই মাথায় এনেছেন। পুজো উদ্যোক্তাদের সঙ্গে কথাবার্তাও প্রায় সারা। মঙ্গলবার সেখানে যান সব্যসাচী দত্ত, প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায়রা। রাজ্য বিজেপির সহ-সভাপতি প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন,”সকলের সঙ্গে আলোচনা করে ঠিক করব।

প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথায়,”সকলের সঙ্গে আলোচনা করে ঠিক করব। এখনই কিছু চূড়ান্ত হয়নি। পুজোর উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী। ষষ্ঠীর সকালে ভাষণ দেবেন। এই পুজোতে অংশ নেব আমরা। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেও অংশ নেব।” তবে প্রধানমন্ত্রীর জন্য পুজা মণ্ডপ খুঁজতে গিয়ে অন্য রকমের অভিজ্ঞতা হয়েছে বিজেপি নেতাদের। তাদের বক্তব্য কলকাতায় নাকি নরেন্দ্র মোদীর উদ্বোধনের জন্য পুজোই খুঁজে পাচ্ছিলেন না তাঁরা! পদ্ম শিবিরের অভিযোগ, শাসক দলের রোষানলের ভয়ে কোনও পুজো কমিটিই সম্মত হচ্ছে

Related Articles

Back to top button