কলকাতা

সর্ষের মধ্যেই ভূত! ব্যবসায়ীকে অপহরণ ও কোটি টাকা লুটের অভিযোগ কলকাতা পুলিশের বিরুদ্ধে, গ্রেফতার

যে পুলিশের উপর শহরকে রক্ষা করার দায়িত্ব সেই পুলিশই যখন শহরের ত্রাস হয়ে ওঠে, তাহলে এর থেকে ভয়ঙ্কর আর কিছু বোধ হয় না। এমনই ঘটনা ঘটল খোদ কলকাতার বুকে। প্রথমে ব্যবসায়ীকে অপহরণ ও পরে কোটি টাকা লুটের ঘটনায় গ্রেফতার কলকাতা পুলিশের এক কনস্টেবল।

এই ঘটনায় এর আগেও আরও এক পুলিশ কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। এবার পুলিশের জালে আটক দেবাশিস দাস নামের এক কনস্টেবল। এই ঘটনায় গোটা শহরে বেশ চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। সল্টলেকের এক আবাসন থেকে গ্রেফতার করা হয় ওই অভিযুক্ত কনস্টেবলকে।

গত জুন মাসে কসবার এক ব্যবসায়ীকে অপহরণ করার ঘটনায় বেশ চাঞ্চল্য ছড়িয়েছিল বাংলায়। পুলিশ সেজে কয়েকজন দুষ্কৃতী ওই ব্যবসায়ীকে গাড়িতে তোলে বলে জানা যায়। এরপর ব্যবসায়ীর থেকে ১.২৫ কোটি টাকা ভর্তি একটি ব্যাগ লুট করা হয় বলে অভিযোগ। এরপর ওই ব্যবসায়ীকে গাড়ি থেকে ছুঁড়ে ফেলে দেওয়া হয়।

এই ঘটনার তদন্তে নেমে তিন যুবককে গ্রেফতার করে কলকাতা পুলিশ। তাদেরকে জেরা করে অমিয় উপাধ্যায় নামে কলকাতা পুলিশের স্পেশ্যাল ব্রাঞ্চের এক কনস্টেবলকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। ওই কনস্টেবল মালদহের বাসিন্দা। জেলে রয়েছেন তিনি আপাতত। তাকে জেরা করে এই ঘটনায় আরও তথ্য পায় পুলিশ।

জানা গিয়েছে, এদিন দেবাশিস দাসকে গ্রেফতার করে তার থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশের সূত্র অনুযায়ী, এই কনস্টেবল দেবাশিস দাস পুলিশ সেজে অপহরণ ও লুট করার কৌশল শেখাত দুষ্কৃতীদের। ইতিমধ্যেই তাকে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ। তাকে জেরা করে আরও অনেক তথ্য জানা যাবে বলেই আশাবাদী পুলিশ।

Related Articles

Back to top button