সব খবর সবার আগে।

‘আমাদের বাঁচান, দয়া করে একবার দেখা করুন’, মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন অস্থায়ী শিক্ষকদের

ফের কালীঘাটে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখালেন অস্থায়ী শিক্ষকরা। নবম ও দশম শ্রেণীর শারীরশিক্ষা ও কর্মশিক্ষার অস্থায়ী শিক্ষকরা তাদের  চাকরি স্থায়ীকরণের দাবী নিয়ে আজ, সোমবার দুপুর ২টো নাগাদ মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির কাছে জমায়েত করেন।

তাদের হাতে ছিল প্ল্যাকার্ড ও ফেস্টুন। তারা দাবী তুলছিলেন চাকরি স্থায়ীকরণের জন্য। তবে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ি পর্যন্ত যাওয়ার আগেই পুলিশ তাদের আটকে দেয়। তাদের পথে ব্যারিকেড দিয়ে দেওয়া হয়।

তবে থেমে থাকেন নি শিক্ষকরা। সেই ব্যারিকেডের সামনে দিয়েই চলে তাদের বিক্ষোভ। শিক্ষকদের দাবী, তারা দীর্ঘদিন ধরে চাকরি স্থায়ীকরণের দাবী তুলে আসছেন। কিন্তু সরকার তাতে কোনও আমলই দিচ্ছে না। এই কারণে একান্ত নিরুপায় হয়েই তারা মুখ্যমন্ত্রীর দুয়ারে এসেছেন। কিন্তু পুলিশ তাদের পথে বাধা হয়ে দাঁড়ায়।

সেখানকার কর্তব্যরত পুলিশরা আন্দোলনকারীদের বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশের সঙ্গে বচসাও বাঁধে তাদের। শেষ পর্যন্ত পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ ভ্যানে তোলে। তবে প্রিজন ভ্যানে উঠেও কাতর কণ্ঠে তারা আর্জি জানান, “মুখ্যমন্ত্রী আমাদের সঙ্গে একবার দেখা করুন। আমাদের বাঁচান”।

আরও পড়ুন- ফের টর্নেডো রাজ্যে! ঝড়ের দাপটে কয়েক মুহূর্তের মধ্যে লণ্ডভণ্ড গঙ্গাসাগরের কপিলমুনি আশ্রম সংলগ্ন এলাকা

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে মুখ্যমন্ত্রীর কালীঘাটের বাড়ির কাছে আদিগঙ্গায় নেমে বিক্ষোভ করেছিলেন অনুমোদনহীন মাদ্রাসার শিক্ষক-শিক্ষিকা ও শিক্ষামিত্ররা। এই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে ঘটনাস্থলে ছুটে যেতে বাধ্য হয়েছিলেন পুলিশ কমিশনার সৌমেন মিত্র। বিক্ষোভকারীদের বক্তব্য ছিল, নানান ক্ষেত্রে তারা বঞ্চিত হচ্ছেন। আর এই কারণেই থেকেই শিক্ষাকর্মীরা প্রতিবাদে সামিল হন।

এদিকে নবম ও দশম শ্রেণীর শারীরশিক্ষা ও কর্মশিক্ষার অস্থায়ী শিক্ষকদের মধ্যেও দীর্ঘদিন ধরেই ক্ষোভ জমছে। তাদের যে সমস্ত দাবী রয়েছে, এর মধ্যে অন্যতম হল অস্থায়ী শিক্ষকদের স্থায়ীকরণ করতে হবে। এই দাবী নিয়ে এর আগেও তারা সরকারের দ্বারস্থ হন। কিন্তু কু লাভ হয়নি। এই কারণে এবার মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির সামনেই প্রতিবাদে সামিল হন তারা।

You might also like
Comments
Loading...