দেশে বিদেশে

ভারত জন্ম দিয়েছে বাংলাদেশকে, ইমরান-হাসিনার বার্তালাপের প্রেক্ষিতে হাসিনাকে সতর্কবাণী তসলিমার

বাংলাদেশের পরোক্ষ জন্মদাতা ভারত, এ কথা যেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভুলে না যান, সোশ্যাল মিডিয়ায় এরকমটাই লিখলেন নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন।

গত সপ্তাহে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের প্রায় ২০ মিনিট টেলিফোনিক কথোপকথন হয়। আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয় দু’দেশের মধ্যে। ফলে জল্পনা হতে থাকে তবে কি বাংলাদেশ-পাকিস্তানের সখ্যতা আবার গড়ে উঠতে চলেছে? বিগত পাঁচ বছর ধরেই পাকিস্তানের সঙ্গে বাংলাদেশের পারস্পরিক সম্পর্কের ক্রমশ অবনতি ঘটছিল। যদিও এই ঘটনার পরে বাংলাদেশের সংবাদমাধ্যম দাবি করেছে যে, উৎসাহটা পাকিস্তানের তরফেই বেশি ছিল।

এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পরই তসলিমা ফেসবুকে লিখেছেন, “একাত্তরে বাংলাদেশের জন্মে সাহায্য করেছিল ভারত। ১৯৭৫ সালে তাঁর (শেখ হাসিনার) বাবার (মুজিবুর রহমান) হত্যার পর স্বামী ও সন্তানদের নিয়ে অতিথি হয়ে ভারতে ছিলেন হাসিনা। এখন হাসিনা নতুন বন্ধুকে জড়িয়ে ধরতে পুরনো বন্ধুর হাত ছাড়ছেন। এটা মোটেও ভাল বুদ্ধি নয়।”

এছাড়া তিনি এই একই বিষয়ে টুইটও করেছেন। যদিও বাংলাদেশের তরফে পাকিস্তানের সঙ্গে বর্তমান সুসম্পর্কের কথা অস্বীকার করা হয়েছে। ‌সেদেশের আবদুল মোমেন সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, নেহাতই সৌজন্যমূলক কথোপকথন হয়েছে হাসিনা ও ইমরানের। করোনা পরিস্থিতি নিয়েই তাঁদের মধ্যে বার্তালাপ হয়েছে। এর মধ্যে কোনরকম তাৎপর্য খুঁজতে যাওয়া অনুচিত।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button