সব খবর সবার আগে।

“আমাদের খুব কম সেনাই মারা গিয়েছেন গালওয়ান সংঘর্ষে”, বিশ্ব দরবারে দাবি চীনের

প্রথমে দাবি করা হল যে তাদের কোনও সেনা সংঘর্ষে মারা যায়নি। এবার চীন দাবি করল যে তাদের সেনা মারা গিয়েছেন গালওয়ান উপত্যকা সংঘর্ষে কিন্তু সংখ্যায় সেটা খুবই কম। ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা প্রাক্তন সেনাপ্রধান ভিকে সিং বলছেন ওই সংঘর্ষে কমপক্ষে ৪০ জন চীনা সেনা মারা গিয়েছেন কিন্তু সেটা বরাবরই অস্বীকার করে আসছে চীন।

কিন্তু এবার বিভিন্ন বিদেশি কূটনীতিকদের কাছে চীনের এই দাবি বিস্ময়করই লাগছে। ভারতের তরফ থেকে জানানো হয়েছিল যে ভারতের কুড়ি জন সেনা শহীদ হয়েছেন এই রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে। যদিও চীন জানায়নি তাদের কতজন মারা গিয়েছে কিন্তু তাদেরও যে কমান্ডিং অফিসার সেই যুদ্ধে মারা গিয়েছে তা সূত্র মারফত জানা গিয়েছে।

চীনের বিদেশমন্ত্রকের সীমান্ত ও সামুদ্রিক বিষয়ের ডেপুটি জেনারেল হি শিয়ানগি বলেন যে তাদের দিকে তেমন লোকজন মারা যায়নি। পরিমিতির প্রকৃত সংখ্যা চীন কেন জানাচ্ছে না। এই প্রশ্নের উত্তরে ঐ কূটনীতিবিদ বলেন যে যদি প্রকৃত মৃত্যুসংখ্যা জানানো হয় তবে মানুষের ভাবাবেগকে উস্কানি দেওয়া হবে এবং তার পরিণতি হতে পারে ভয়ঙ্কর তাই চীনের তরফ থেকে জানানো হচ্ছে না যে কতজন সেনা সেই সংঘর্ষে মারা গিয়েছেন।

সূত্র মারফত জানা গিয়েছে যে ওই কুটনীতিবিদ বলেছেন চীন চায় না মিডিয়া মৃতের সংখ্যা নিয়ে বাড়াবাড়ি করুক। এখন দুই পক্ষেরই প্রয়োজন বর্তমানে যে উত্তেজনা দু’দেশের মধ্যে চলছে তা প্রশমিত করার। এখন চীন যদি তাদের কতজন সেনা মারা গিয়েছে সেই তথ্য মিডিয়ার সামনে তুলে দেয় তবে সেই নিয়ে প্রতিযোগিতা শুরু হতে পারে যে কোন দেশ জিতল এই যুদ্ধে তাই চীন দুই দেশের মধ্যে শান্তি বজায় রাখার জন্য তাদের কতজন সেনা ওই সংঘর্ষে মারা গিয়েছেন তা প্রকাশ্যে আনছে না বলে জানিয়েছেন ওই কূটনীতিবিদ।

এই প্রথমবার চীন থেকে স্বীকার করা হল যে চীন-ভারতের এই সংঘর্ষে তাদের সেনারা মারা গিয়েছেন। যদিও যথারীতি এই সংঘর্ষের দায় ভারতের উপরেই চাপিয়েছে চীন।

You might also like
Leave a Comment