সব খবর সবার আগে।

নিজেদের ম্যাপে ভারতের অংশ সংশোধন করলো না পাকিস্তান। রেগে বৈঠক ছাড়লেন অজিত দোভাল।

নিজেদের কর্মকাণ্ডে এতটুকুও বিচলিত নয় পাকিস্তান (Pakistan)। আর যার ফলস্বরূপ ‘সাংহাই কো-অপারেশন অর্গানাইজেশনে’র (Shanghai co-operation Organisation) বৈঠক থেকে সটান বেরিয়ে গেল ক্ষুব্ধ ভারত (India)। যথারীতি ভারতের এই আচরণের কড়া সমালোচনা করল ইমরান খান সরকার।

ভারতের এই কাজের পিছনে আসল ঘটনাটা জেনে নেওয়া যাক! ‘সাংহাই কো-অপারেশন অর্গানাইজেশনে’র সদস্য দেশগুলির আয়োজিত ‘ন্যাশনাল সিকিউরিটি অ্যাডভাইসার (এনএসএ)-র এই ভার্চুয়াল মিটিং ছিল আজ। সেই মিটিংয়েই ফের পাকিস্তান তাদের দেশের যে নতুন ম্যাপটি তুলে ধরল তাতে দেখা গেল ভারতের জম্মু ও কাশ্মীর, লাদাখ এবং গুজরাতের কিছু অংশ অবলীলায় পাকিস্তানের সেই মানচিত্রের (map) সভা বর্জন করছে!

আর পাকিস্তানের এহেন বেআইনি কাজে রেগেমেগে বৈঠক ছেড়ে বেরিয়ে গেলেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল (Ajit Doval)। পাকিস্তানের এই আচরণকে ‘এক্সারসাইজ ইন পলিটিক্যাল অ্যাবসারডিটি’ বলে উল্লেখ করল নয়াদিল্লি (New Delhi)।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য উক্ত মানচিত্রটি পাকিস্তান গত মাসের ৪ তারিখে তৈরি করেছিল। পাকিস্তানের এই মানচিত্র বিকৃতির ঘটনায় ভারতের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব জানান, এনএসএ-র এই মিটিংয়ে পাকিস্তান ইচ্ছাকৃত ভাবে একটি কাল্পনিক মানচিত্র তুলে ধরেছে। যে কোনও আলোচনার আসরে এই ধরনের কাজ তো মিটিংয়ের মূল লক্ষ্যটিকেই ব্যাহত করে। তা ছাড়া মিটিংয়ের হোস্টের পক্ষেও এটা বেশ অবমাননাকর ব্যাপার। যে অপমানের মুখোমুখি এ ক্ষেত্রে হল রাশিয়া।

ঘটনা হল, আসল মানচিত্র যা-ই হোক, আর পাকিস্তান যে মানচিত্রই বৈঠকে তুলে ধরুক তার তুল্যমূল্য বিচার নিয়ে পাকিস্তানের তরফে কোনও স্পষ্ট ও স্বচ্ছ বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে বৈঠক থেকে বেরিয়ে যাওয়ায় ভারতকে সমালোচনা করতেও ছাড়েনি তারা। পাকিস্তান জানায়, যে-ফোরামের কাজই সহযোগিতার আবহ তৈরি করা সেই রকম একটি মঞ্চ থেকে ভারতের এই ভাবে বেরিয়ে যাওয়াটা বেশ বাজে একটা ব্যাপার।

You might also like
Leave a Comment