সব খবর সবার আগে।

পাকিস্তানি যুবকের হাতে খুন ভারতীয় দম্পতি! তদন্তে পুলিশ!

দুবাইতে ভারতীয় দম্পতি খুনে ধৃত পাকিস্তানি যুবক। অপরাধ করে পালানোর সময় যুবককে দেখে ফেলায় কোপানো হয় ওই দম্পতির কিশোরী মেয়েকেও। যদিও বরাত জোড়ে মেয়েটি প্রাণে বেঁচে গিয়েছে।

কিন্তু কেন‌ও এমন ঘটনা ঘটলো সেই নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা। দুবাইয়ের দূতাবাস সূত্রে খবর, গুজরাটের আদি বাসিন্দা ছিল ওই পরিবার। নিহত ওই ব্যক্তির নাম হিরেন আধিয়া। তিনি শারজার এক তেল ও গ্যাস সংস্থার উচ্চপদে কর্মরত ছিলেন। মাত্র বছর দু’য়েক আগে গুজরাট থেকে তাঁর স্ত্রী ভিধি আধিয়া ও দুই ছেলে-মেয়েও দুবাইতে চলে আসেন। ছেলের বয়স ১৩ বছর ও মেয়ের বয়স ১৮। অত্যন্ত সচ্ছল এই পরিবারে বাড়িতেই থাকত নগদ টাকা ও গয়না। সেই সুযোগ নেয় ওই অভিযুক্ত। পুলিশ সূত্রে খবর, গত ১৮ই জুন আধিয়া ভিলায় ডাকাতি করতে আসে ওই যুবক। সেই সময় বাড়িতেই ছিলেন হিরেন ও ভিধি। ডাকাতিতে বাধা পেয়েই অভিযুক্ত ওই পাকিস্তানি যুবক খুন করে দম্পতিকে। খুনিকে দেখে ফেলায় তাঁদের মেয়েকেও খুনের চেষ্টা করা হয়।

পুলিশ সূত্রে খবর, বছর দু’য়েক আগে তাদের বাড়ি সংস্কার করা হয়েছিল। সেই সময় মিস্ত্রি হিসেবে ওই বাড়িতে প্রবেশ করে সে। ওই বাড়িতে কাজ করার সুবাদে বাড়ির প্রায় সবকিছুই অভিযুক্তের জানা ছিল। সূত্রের খবর বর্তমানে কাজ হারিয়ে বেকার হয়ে যায় সে। আর তারপরই আধিয়া পরিবারের বাড়িতে ডাকাতি করার ছক কষে সে।

তবে অন্য একটি সূত্র জানাচ্ছে আধিয়া পরিবারের কাছে কাজ করত অভিযুক্ত ওই যুবক। কিন্তু ওই পরিবার পরে তাকে কাজ থেকে তাড়িয়ে দেয়। সেই প্রতিশোধ মেটাতেই এই ঘটনা ঘটিয়েছে সে। অভিযুক্তকে হেফাজতে নিয়ে তদন্ত চালাচ্ছে পুলিশ।

You might also like
Leave a Comment