দেশে বিদেশে

বুধবার রাষ্ট্রীয় শোক পালিত হবে বাংলাদেশে, প্রণব মুখোপাধ্যায়ের প্রয়াণে শোকস্তব্ধ শেখ হাসিনা

বাংলাদেশের নড়াইলে ছিল তাঁর শ্বশুর বাড়ি। ১৯৭১ সালে পাকপন্থী উগ্রবাদীদের অত্যাচার সত্বেও সেই ভিটেমাটি ছাড়েননি তাঁর আত্মীয়রা। জামাইষষ্ঠীতে ঢাকা থেকে নয়াদিল্লিতে পৌঁছাতো মিষ্টি।মুক্তিযুদ্ধের সময় শেখ মুজিবুর রহমানের পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। তাই বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী মুজিবুর কন্যা শেখ হাসিনা (Sheikh Hasina) প্রয়াত প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়কে (Pranab Mukherjee) দাদা বলে ডাকতেন। সোমবার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন প্রণব বাবু। শোকস্তব্ধ শেখ হাসিনা (Sheikh Hasina), শোকে ম্রিয়মাণ বাংলাদেশ (Bangladesh)। আগামীকাল বুধবার একদিনের রাষ্ট্রীয় শোক (National Mourning) পালন করবে বাংলাদেশ (Bangladesh)। এদিন সে দেশের জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হবে, ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা (Sheikh Hasina)।

প্রণববাবুর (Pranab Mukherjee) মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মহম্মদ আবদুল হামিদ (Md. Abdul Hamid)। তিনি শোকবার্তায় বলেছেন, প্রণব মুখার্জির (Pranab Mukherjee) মৃত্যু ভারতীয় উপমহাদেশের রাজনীতির জন্য এক ‘অপূরণীয় ক্ষতি’।

দাদার মৃত্যুতে আবেগ বিহ্বল হয়ে গিয়েছেন বোন শেখ হাসিনা (Sheikh Hasina)। এদিন প্রণববাবুর (Pranab Mukherjee) সঙ্গে বঙ্গবন্ধু পরিবার ও নিজের বহু স্মৃতি স্মরণ করেন তিনি। তাঁর কথায়, ”বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে একজন রাজনীতিবিদ ও আমাদের পরম সুহৃদ হিসেবে প্রণব মুখোপাধ্যায়ের (Pranab Mukherjee) অনন্য অবদান কখনও বিস্মৃত হওয়ার নয়। মুক্তিযুদ্ধে তাঁর অসামান্য অবদান কোনো দিন ভোলার নয়।”

১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সপরিবারে নিহত হন। সেই ভয়ঙ্কর সময়ে ভারতে নির্বাসিত ছিলেন মুজিবুর কন্যা। সেই সময় প্রণব মুখোপাধ্যায় তাঁকে প্রভূত সাহায্য করেছিলেন। তিনি হাসিনা পরিবারের খোঁজখবর রাখতেন এবং যে কোনও প্রয়োজনে হাসিনা্র ছোট বোন শেখ রেহানা ও পরিবারের বাকি সদস্যদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। দেশে ফেরার পরও তিনি সহযোগিতা এবং উৎসাহ দিয়েছেন। শেখ হাসিনা (Sheikh Hasina) বরাবর তাঁকে নিজের পরিবারের অভিভাবক মেনে এসেছেন। স্বাভাবিকভাবেই আজ প্রণব মুখোপাধ্যায়ের (Pranab Mukherjee) মৃত্যুতে অভিভাবকহীন হলো শেখ হাসিনার (Sheikh Hasina) পরিবার।

ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী ড. এ. কে. আবদুল মোমেন। তিনি জানান, সবসময়ই বাংলাদেশের মঙ্গলকামনায়, শান্তি, ও উন্নয়নের প্রতি প্রণববাবুর অঙ্গীকারের জন্য এদেশের মানুষের হৃদয়ে বিশেষ স্থান করে নিয়েছিলেন। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি (BNP)র তরফ থেকে বলা হয়েছে, পৃথিবী থেকে প্রণব মুখোপাধ্যায়ের (Pranab Mukherjee) বিদায় গভীর দুঃখ ও বেদনার।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button