সব খবর সবার আগে।

ভারত-চীন সীমান্তে মোতায়েন হচ্ছে নিরাপত্তা বাহিনী, রাস্তার দু’পাশে দাঁড়িয়ে জওয়ানদের উৎসাহ দান তিব্বতীদের!

রাস্তার দু’পাশে দাঁড়িয়ে ভারতীয় জওয়ানদের (Security Forces) উৎসাহ দিলেন স্থানীয় তিব্বতী বাসিন্দারা (Tibetan)। উল্লেখ্য হিমাচল প্রদেশের লাহুল-স্পিতি ও কিন্নরে ভারত-চীন সীমান্তে (China Border) মোতায়েন হতে যাচ্ছে এই নিরাপত্তা বাহিনীর জ‌‌‌‌‌‌ওয়ানরা। গাল‌ওয়ান সংঘর্ষের পর থেকেই একেবারে নিম্নমুখী ভারত-চীন (India-China) দুই প্রতিবেশী দেশের সম্পর্ক। এই বিগড়ে যাওয়া সম্পর্কে সুস্থতা আনতে আলোচনা চলছে দু’পক্ষেই। কিন্তু এখনও মেলেনি কোন সমাধান সূত্র।

আর তাই ভারত-চীন সীমান্তে পাহারা বাড়াতে স্পেশাল টিবেটান ফ্রন্টিয়ার ফোর্সের (Tibetan frontier force) আরও জওয়ানকে পাঠাচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। এই ফোর্সের একটা বড় অংশ তৈরি হয়েছে তিব্বতী শরণার্থীদের নিয়ে। তিব্বত থেকে ভারতে আশ্রয় নেওয়া উদ্বাস্তু তিব্বতীদের (Tibetan) অনেকে থাকেন হিমাচল প্রদেশের পান্থাঘাটি এলাকায়। সিমলা জাতীয় সড়কের দু’পাশে দাঁড়িয়ে এসটিএফএফ জওয়ানদের উৎসাহ দিলেন তাঁরা, সৌভাগ্য কামনা করে হাতে তুলে দিলেন খাতা, যা হল বৌদ্ধদের প্রার্থনা মন্ত্র লেখা স্কার্ফ।

এতদিন পর্যন্ত এই জওয়ানরা নিয়োজিত ছিলেন সুগার সেক্টরে। এবার তাঁদের হিমাচলের বিভিন্ন সীমান্ত এলাকায় পাঠানো হচ্ছে। তিব্বতীরা (Tibetan) আশা প্রকাশ করেছেন, একদিন চীনা আগ্রাসনমুক্ত স্বাধীন তিব্বত দেখতে পাবেন তাঁরা। তাঁরা বলেছেন, সাম্প্রতিক ভারত-চীন অশান্তিতে স্পেশাল টিবেটান ফ্রন্টিয়ার ফোর্স (Tibetan frontier force) বড় ভূমিকা নিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে সেনার আত্মবিশ্বাস বাড়ানো ভূমিহারা হওয়া তিব্বতীদের কর্তব্যের মধ্যে পড়ে।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...