সব খবর সবার আগে।

‘বন্দে ভারত’ মিশনের আওতায় ৩ টি বিমানে প্রায় ৩৩৫ জন ভারতীয় দেশে ফিরলেন

লকডাউনের মধ্যে এবার শুরু হলো বিদেশ থেকে ভারতীয়দের দেশে আনার পালা। করোনা রুখতে দেশব্যাপী হঠাৎ করেই লকডাউনের ডাক দেয় কেন্দ্র। যার ফলে স্তব্ধ হয়ে যায় সমস্ত আন্তর্জাতিক বিমান। আর তার জেরেই অনেক মানুষই পরবাস থেকে নিজের দেশে ফিরতে পারেনি। এবার এইসব মানুষকে দেশে ফেরানোর উদ্যোগ নিল কেন্দ্র। এই মিশনের নাম দেওয়া হয়েছে ‘বন্দে ভারত’ মিশন। এই মিশনের আওতায় উপসাগরীয় দেশ থেকে ৩৩৫ জন ভারতীয়কে কেরলে নিয়ে এল ভারত।

বন্দে ভারত মিশনের মাধ্যমে শুক্রবার রিয়াধ থেকে একটি বিমান এসে পৌঁছায় কোঝিকোড়ে। সেই বিমানের যাত্রী সংখ্যা ছিল ১৫৩। এদের মধ্যে ৮৪ জন গর্ভবতী, ২২জন শিশু ও ৪ ছোট বাচ্চা ছিল। শুক্রবার সন্ধে আটটা নাগাদ বিমানটি কোঝিকোড়ে এসে পৌঁছায়। আবার সেদিন বাহারিন থেকেও একটি বিমান কিছু ভারতীয়কে উড়িয়ে নিয়ে আসে দেশে। বিমানে যাত্রী সংখ্যা ছিল ১৭৭ জন। বিমানটি এসে পৌঁছায় রাত সাড়ে এগারোটা নাগাদ।

দুটি বিমানে ওঠার আগেই প্রতিটি যাত্রীকে পরীক্ষা করে দেখা হয়েছে যে তাদের শরীরে কোভিডের কোনও প্রকার উপসর্গ রয়েছে কিনা। রিয়াধ থেকে যারা এসেছেন তাদের মধ্যে ৫ জনের শারীরিক অসুস্থতা রয়েছে বলে বিমানবন্দর সূত্রে জানা গেছে। এদের সবাইকেই আপাতত কোঝিকোড়ে মেডিক্যাল কলেজে রাখা হয়েছে।

এই নিয়ে শুক্রবার মোট ৩টি বিমান ভারতীয়দের উড়িয়ে নিয়ে দেশে ফিরেছে। এদের মধ্যে ২টি কেরলে এবং তৃতীয়টি এসেছে দিল্লিতে। দিল্লিতে আসা এয়ার ইন্ডিয়ার সেই বিমানে যাত্রী সংখ্যা ছিল ২৩৪। বিমানটি এসেছে সিঙ্গাপুর থেকে।

উল্লেখ্য, বন্দে ভারত মিশনের আওতায় ৬৪টি বিমান ও ৩টি নৌবাহিনীর মাধ্যমে ভারতীয়দের দেশে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে। জাহাজে মোট ১৫,০০০ ভারতীয় বিদেশ থেকে দেশে ফিরবেন।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
Comments
Loading...