দেশ

কোভিশিল্ডের দুটি ডোজেও ১৬ শতাংশ মানুষের শরীরে তৈরি হয়নি অ্যান্টিবডি, দরকার বুস্টারের, দাবী ICMR-এর

কোভিশিল্ডের দুটি ডোজ নেওয়ার পরও প্রায় ১৬ শতাংশ মানুষের শরীরে তৈরি হয়নি অ্যান্টিবডি। এই ধরণের ব্যক্তিকে নিতে হবে বুস্টারের টিকা। এমনটাই পরামর্শ দিলেন ICMR বা ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চের এক বিশেষজ্ঞ।

ICMR-এর তরফে এক্ত সমীক্ষা করা হয়েছে, এতে দেখা গিয়েছে যে কোভিশিল্ডের দুটি ডোজ নেওয়ার পরও প্রায় ১৬ শতাংশের শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়নি। অর্থাৎ টিকা নেওয়ার পরও তাদের শরীর করোনার ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের সঙ্গে লড়তে সক্ষম নয়। এক্ষেত্রে সেই সমস্ত ব্যক্তিকে নিতে হবে বুস্টারের টিকা।

আরও পড়ুন- ‘দলে মরচে ধরেছে, শীর্ষ নেতাদের সরিয়ে তরুণদের প্রাধান্য দেওয়া হোক’, বদল চেয়ে আলিমুদ্দিনে চিঠি কান্তির

বিশেষত দেখা গিয়েছে, ৬৫ বছরের ঊর্ধ্ব ও কো-মর্বিডিটি রোগীদের শরীরেই দুটি ডোজ নেওয়ার পরও তৈরি হচ্ছে না অ্যান্টিবডি। তাদের শরীর টিকা নেওয়ার পরও ডেল্টা প্রজাতির সঙ্গে লড়তে পারবে না। তাই তাদের ক্ষেত্রে বুস্টার টিকা নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন ICMR-এর বিশেষজ্ঞরা।

জানা গিয়েছে, ভেলোরের খ্রিস্টান মেডিক্যাল কলেজের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের প্রাক্তন প্রধান টি জেকব জন বলেন, “অ্যান্টিবডি যে শরীরে একেবারেই মেলেনি, তা নয়। কিন্তু অ্যান্টিবডি কম তৈরি হয়েছে, তাই তা ধরা পড়েনি”।

সমীক্ষার রিপোর্ট দেখে তিনি আরও বলেন, “যাদের শরীরে অ্যান্টিবডি মেলেনি তাদের শরীরে মধুমেহ, উচ্চ রক্তচাপ, হৃদ্‌রোগের সমস্যা আছে। তবে আপাতত দৃষ্টিতে তাঁরা সুস্থ-সবল ব্যক্তি। তাঁদের বয়স ৬৫-ঊর্ধ্বে। মনে করা হচ্ছে এঁদের শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়নি। আর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে ওঠেনি। দেহে পর্যাপ্ত অ্যান্টিবডি তৈরি করতে তাঁদের তৃতীয় বুস্টার টিকা নিতে হতে পারে”।

Related Articles

Back to top button