দেশ

হিন্দু নববর্ষের র‍্যালিতে দেদার পাথরবাজি, একাধিক দোকানে, বাইকে আগুন, ভাঙচুর, রণক্ষেত্র রাজস্থানের করৌলি এলাকা

হিন্দু নববর্ষের র‍্যালির উপর ছোঁড়া হল পাথর। ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের করৌলিতে। জানা গিয়েছে, গতকাল, শনিবার করৌলি এলাকা দিয়ে একটি বাইক র‍্যালি ও শোভাযাত্রা যাচ্ছিল। হিন্দু নববর্ষ উপলক্ষ্যে ছিল এই র‍্যালি।

কিন্তু অভিযোগ, ওই এলাকা দিয়ে যাওয়ার সময়ই র‍্যালি ও শোভাযাত্রার উপর নাগাড়ে ছোঁড়া হতে থাকে পাথর। পুলিশের কথা অনুযায়ী, মুসলিম অধ্যুষিত এলাকার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিল হিন্দুদের ওই বাইক র‍্যালিটি। সেই সময় র‍্যালির উপর পাথর ছুঁড়তে থাকে কিছু লোক, এরপরই পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। বেশ কয়েকটি দোকান ও বাইক পুড়িয়ে দেয় হিন্দু বিরোধীরা।

এই ঘটনার জেরে গোটা এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে উত্তেজনা। পরিস্থিতি বাগে আনার জন্য বাজার ও শহরে কার্ফু জারি করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন যে এই ঘটনায় অভিযুক্ত দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ করবে পুলিশ। তিনি এও জানিয়েছেন যে যারা অসামাজিক কাজ করে পরিবেশ নষ্ট করার চেষ্টা করছে, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

রাজস্থানের ADG আইন ও শৃঙ্খলা হাওয়া সিং ঝুমারিয়া বলেন যে এখনও পর্যন্ত এই মামলায় ৩৬ জনকে আটক করা হয়েছে। তবে আপাতত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। রাজস্থান পুলিশের কথায়, গুজব রোধ করার জন্য করৌলি মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এবং অসামাজিক উপাদানগুলির উপর কড়া নজর রাখা হচ্ছে। প্রশাসনিক কর্মীরা জয়পুর থেকে ১৭০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত করৌলি পরিস্থিতি ক্রমাগত পর্যবেক্ষণ করছেন।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, মদন মোহন এলাকায় প্রায় ১২টিরও বেশি দোকান ও ৩টি বাইক পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় ৩৩ জন সাধারণ মানুষ ও ৪ জন পুলিশ কর্মীর আহত হওয়ার খবর মিলেছে। এদের মধ্যে এক ব্যক্তির পরিস্থিতি বেশ আশঙ্কাজনক। তাঁর শরীরে ছুরির আঘাত রয়েছে বলে খবর।

সূত্রের খবর, এই ঘটনায় প্রায় লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এর জেরে জেলায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। পুলিশ-প্রশাসনের তরফে জনগণকে শান্ত রাখার চেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।

Related Articles

Back to top button