দেশব্যাবসা, বাণিজ্য ও অর্থনীতি

বিশ্ব নারী দিবসে মহিলা ক্ষমতায়নের জন্য মা-বোনেদের পাশে বন্ধন

মেয়েরা শক্তিশালী হলে তবেই সমাজ এগোবে। এই মূলমন্ত্রেই বিশ্বাসী বন্ধন ব্যাঙ্ক। এই কারণেই তাদের সামাজিক সংস্কারমূলক কাজগুলির মধ্যে বেশিরভাগই রয়েছে নারীকল্যান, তাদের স্বাস্থ্য ও স্বাক্ষরতা, শিশুকন্যাদের উন্নতি, মেয়েদের আর্থিক সাক্ষরতা সংক্রান্ত। প্রায় দীর্ঘ ২০ বছর ধরে বন্ধন এইভাবেই এদেশের গ্রামীণ ও দরিদ্র মহিলার পাশে দাঁড়িয়েছে।

টার্গেটিং দ্য হার্ডকোর পুওর বন্ধনের তরফে একটি কার্যক্রম যেখানে দরিদ্রসীমার নিচে থাকা দুস্থ মহিলাদের দৈনন্দিন রোজগারের একটা পথ বাতলে দেয় ও পরিবারকে নিয়ে সুস্থভাবে বেঁচে থাকার শক্তিও জোগানো হয়। মূলধন হিসেবে বন্ধনের তরফেই তাদের কোনও দোকান শুরু করার জন্যে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র বা হাঁস-মুরগি-গরু-ছাগল জাতীয় গৃহপালিত পশুপাখি কিনে দেওয়া হয়। শুধু তাই-ই নয়, তাদের প্রাথমিক আর্থিক শিক্ষাও দেওয়া হয় যাতে ব্যবসা করে তারা উন্নত জীবনযাপন করতে পারেন। এখনো অবধি দেশের ১,১৮,১২১ মহিলা এই প্রোগ্রামের মাধ্যমে উপকৃত হয়েছেন ও সমাজের মূল স্রোতে ফিরেছেন।

মেয়েদের ও শিশুদের স্বাস্থ্য ও সচেতনতা সংক্রান্ত কাজ করার জন্যে শুরু হয় বন্ধন হেলথ প্রোগ্রাম। অন্তঃসত্ত্বা মহিলা, সদ্য মা হওয়া মহিলা ও শিশুকন্যাদের উপরই বিশেষ নজর দেওয়া হয় এই প্রোগ্রামে। খেয়াল রাখা হয় তাদের স্বাস্থ্য, পুষ্টি ও বিধিসম্মত চিকিৎসার ব্যাপারে।  গ্রামেরই উৎসাহী মহিলাদের বেছে নিয়ে তাদের উপযুক্ত প্রশিক্ষণ দিয়ে স্বাস্থ্য সহায়িকা হিসেবে কাজে নিযুক্ত করা হয়। তারা নিয়মিত গ্রামের মেয়েদের স্বাস্থ্য সম্পর্কিত শিক্ষা দেন, গর্ভবতী মহিলাদের শারীরিক ও পুষ্টিগত দিকগুলি খেয়াল রাখেন ও প্রয়োজনে বিনামূল্যে ওষুধও বিতরণ করেন। এখনও পর্যন্ত ২০ লাখেরও বেশি মানুষ এই প্রোগ্রামের মাধ্যমে উপকৃত হয়েছেন।

আরও পড়ুন- আন্তর্জাতিক নারী দিবসে নজিরবিহীন উদ্যোগ বাংলাদেশের: তৃতীয় লিঙ্গের নাগরিক পেলেন এই বিশেষ সুযোগ

এছাড়াও, মেয়েদের শিক্ষার প্রয়োজনীয়তাও খুবই গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হয়। বন্ধন এডুকেশন প্রোগ্রামের অন্তর্গত ছোট ছোট অবৈতনিক স্কুল তৈরী করে গ্রামের শিশুদের সেখানে উপযুক্ত শিক্ষা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়। তাদের প্রয়োজনীয় শিক্ষার উপাদান যেমন বই-খাতা-পেন্সিল সবকিছুই বিনামূল্যে যোগান দেওয়া হয়। শিক্ষা ছাড়া যে কোনোভাবেই সমাজের মূলস্রোতে টিকে থাকা সম্ভব নয়। এই কথাটা ভালোভাবেই জানে বন্ধন। এই কারণে গ্রামের দরিদ্র পরিবারগুলি থেকে শিশুদের নিয়মিত স্কুল যাবার বন্দোবস্ত করেছে তারা।

শুধু শিশুই নয়, মহিলাদের আর্থিক সাক্ষরতার ক্ষেত্রেও দিশা দেখিয়েছে বন্ধন। সংসার চালাতে ও ভবিষ্যতের জন্যে সঞ্চয় করতে যে ন্যূনতম আর্থিক শিক্ষাটুকুর প্রয়োজন হয়, তার ব্যবস্থাও বন্ধন শুরু করেছে তাদের বন্ধন ফিনান্সিয়াল লিটারেসি প্রোগ্রামের মাধ্যমে। এই প্রোগ্রামের দ্বারা মহিলাদের শেখানো হয় ক্ষুদ্রঋণ নিলে তা কীভাবে যথাযথভাবে ব্যবহার করতে হয়, কীভাবে ব্যবসা চালাতে হয় ও খরচের হিসেব রাখতে হয়। ইতিমধ্যেই ৬ লক্ষেরও বেশি মহিলা এই প্রোগ্রামের মাধ্যমে উপকৃত হয়েছেন।

Related Articles

Back to top button