সব খবর সবার আগে।

অর্থনীতির মন্দা বাজারে নতুন দিশা দেখালো বন্ধন ব্যাঙ্ক

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

গোটা দেশ জুড়ে যখন এক এক করে মুখ থুবড়ে পড়ছে বিভিন্ন ব্যাঙ্ক, তখনই এক নজির গড়ল বন্ধন ব্যাঙ্ক। গোটা দেশ জুড়ে আরো ১৫টি রাজ্যে ১২৫টি আউটলেট চালু করলো বন্ধন ব্যাঙ্ক। এই আউটলেটের একটা বড়ো অংশ চালু হয়েছে উত্তরপ্রদেশে, সেখানে মোট ৪২টি নতুন শাখা চালু করা হয়েছে। এর পর একে একে ২৯টি রাজস্থানে, ১২টি মধ্যপ্রদেশ, অন্ধ্রপ্রদেশ, এবং তেলেঙ্গানায় ৭টি। এছাড়াও বিহার, ছত্তিশগড়, ওড়িশায় যথাক্রমে ৬টি, ৫টি এবং ৪টি শাখা খোলা হয়েছে। এবং সব শেষে পশ্চিমবঙ্গ ও দিল্লিতে ১টি করে শাখা খোলা হয়েছে। আগে এই ব্যাঙ্ক-এর শাখা ছিল ১০১০টি যা এখন বেড়ে হলো ৪৪১৪টি। এর মধ্যে ৩২০৬ টি হল ব্যাঙ্কিং ইউনিট, এবং তার সাথে রয়েছে  হোম লোন সার্ভিস সেন্টার ১৯৫ টি।

প্রসঙ্গত, নতুন শাখা খোলার ব্যাপারে বন্ধন ব্যাঙ্ক-এর উপর নিষেধাজ্ঞা রেখেছিল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া। কিন্তু বর্তমানে সেটি তুলে নেওয়া হয়। নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার মাত্র দুই সপ্তাহের মধ্যেই সারা দেশজুড়ে ১২৫ টি আউটলেট চালু করলো বন্ধন ব্যাঙ্ক। এখন সারা দেশের মধ্যে ৩৬ টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মধ্যে ৩৪টিকেই বন্ধনের ব্যাঙ্কিং নেটওয়ার্ক-এর আওতায় আনা সম্ভব হয়েছে।

ব্যাঙ্ক এর শাখা বৃদ্ধি এবং ব্যাঙ্কিং নেটওয়ার্ককে এত বড় মাধ্যমে নিয়ে আসার সুবাদে বন্ধন ব্যাঙ্কের ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার চন্দ্রশেখর ঘোষ বলেন, “আমরা খুশি যে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক নতুন শাখা খোলার ব্যাপারে বিধিনিষেধ প্রত্যাহার করে নিয়েছে। এর ফলে আরও দ্রুত হারে ব্যবসা বাড়াতে পারব বলেই আমরা আশাবাদী। সার্বজনীন ব্যাঙ্ক হিসাবে মাত্র সাড়ে চার বছরের মধ্যেই আমরা সুযোগ ও সম্ভাবনাময় এলাকাগুলিকে চিহ্নিত করে আমাদের নেটওয়ার্ক ও ব্যবসার প্রসার ঘটাতে পেরেছি। নতুন ১২৫ টি ব্যাঙ্কিং আউটলেট আরও ভাল করে পরিষেবা দিতে সাহায্য করবে। গ্রাহক ও অংশীদাররা যে পরিমাণ আস্থা ও ভরসা আমাদের উপর রেখেছেন তাতে আমরা প্রত্যয়ী যে বৃদ্ধির পথেই থাকবে বন্ধন ব্যাঙ্ক”।

এই ব্যাঙ্ক-এর মাধ্যমে ২০১৯ সালের ৩১ শে ডিসেম্বর অবধি ১.৯ কোটি গ্রাহক পরিষেবা পেয়েছেন বলে দাবি করা হয়েছে ব্যাঙ্ক সূত্রে। আশা করা যায় নতুন শাখা বাড়ানোর ফলে আরো অনেক গ্রাহক উপকৃত হবেন এবং সেই সঙ্গে দেশের অর্থনীতিতে এটি বেশ পজিটিভ প্রভাব ফেলবে। বর্তমান অর্থনীতির বছরে ব্যাঙ্কের মোট আমানতের পরিমাণ ৫৪,৯০৮ কোটি টাকা এবং ঋণের পরিমাণ মোট ৬৫,৪৫৬ কোটি টাকা। সর্ব সাকুল্যে ব্যাঙ্কের মোট ব্যবসার আয়তন বর্তমানে ১,২০,৩৬৪ কোটি টাকা। তাই ব্যাঙ্ক-এর ব্যবসার উন্নতি নিয়ে সর্বাধিক ভাবে আশাবাদী বন্ধন ব্যাঙ্কের ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার চন্দ্রশেখর ঘোষ।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.