সব খবর সবার আগে।

বাঙালির গর্ব! স্বল্প ব্যয়ে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের ওষুধ আবিষ্কার করলেন আইআইটির দুই বাঙালি বিজ্ঞানী

একদিকে যখন করোনা নিয়ে গোটা দেশ সন্ত্রস্ত, ঠিক তখনই মাথাচাড়া দেয় অন্য একটি মারণ ভাইরাস, ব্ল্যাক ফাঙ্গাস। করোনার সঙ্গেই তাল মিলিয়ে বাড়ছে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্তের সংখ্যা। দেশের অনেক রাজ্যতেই এই ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের রোগকে মহামারী বলে দাবী করা হয়েছে।

ঠিক এমন সময়েই রীতিমতো ভগবানরূপে দেখা দিলেন দুই বাঙালি বিজ্ঞানী। তারা কম দামে এই ব্ল্যাক ফাঙ্গাস রোগের ওষুধ আবিষ্কার করলেন। হায়দ্রাবাদের এই দুই বাঙালি আইআইটি বিজ্ঞানীর নাম ডঃ চন্দ্রশেখর শর্মা ও ডঃ সপ্তর্ষি মজুমদার।

আরও পড়ুন- ভাড়াটে নিয়ে সমস্যা? ভাড়া বাড়ি পেতে অসুবিধা? বাড়িওয়ালা-ভাড়াটে চুক্তি নিয়ে নয়া আইন আনল মোদী সরকার 

কম দামে এই ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের ওষুধ আবিষ্কার করে সকলকে তাক লাগিয়েছেন এই দুই বিজ্ঞানী। আসলে, যা পরিস্থিতি দাঁড়িয়েছে তাতে এই রোগের চিকিৎসার খরচ জোগানো সকলের পক্ষে সম্ভব হচ্ছে না। প্রতিদিন প্রায় তিন হাজার টাকা ব্যয় করে টানা ৩০ দিন ওষুধ দিতে হচ্ছে।

কিন্তু এই দুই বিজ্ঞানী মিলে যে ওষুধ আবিষ্কার করেছেন তা হল ওড়াল ট্যাবলেট। এর ৬০ মিলিগ্রামের একটি ওষুধের দাম মাত্র ২০০ টাকা।

জানা গিয়েছে, খুব তাড়াতাড়ি এই ওষুধ ভারতের বাজারে আসতে চলেছে। বর্তমানে যে ওষুধ পাওয়া যাচ্ছে, এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে। কিন্তু ট্যাবলেট জাতীয় এই নতুন ওষুধে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার সম্ভাবনা কম।

এমন এক পরিস্থিতিতে এই ধরণের একটি ওষুধ তৈরি করা সত্যিই প্রশংসনীয়। এই দুই বিজ্ঞানীর এই আবিষ্কার নিয়ে গোটা দেশে হইচই পড়ে গিয়েছে। এখন যখন বিশেষজ্ঞ মহল এটা চিন্তা করছেন যে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসকে কীভাবে সম্পূর্ণ নির্মূল করা যায়, সেই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে এমন একটি আবিষ্কার সত্যিই অভাবনীয়।

You might also like
Comments
Loading...