সব খবর সবার আগে।

কংগ্রেসের চেয়ে দ্বিগুণ আসন নিয়ে রাজ্যসভার দখল নিল বিজেপি

এবার রাজ্যসভায় নিজেদের শক্তি বাড়াল বিজেপি। কংগ্রেসকে অনেকটাই ছাপিয়ে গেল কেন্দ্রীয় শাসক দল। শুক্রবার বিকালে ঘোষিত হয়েছে রাজ্যসভার ফলাফল। রাজ্যসভায় এখন বিজেপির সদস্য সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮৬। আর কংগ্রেস নেমে গেল ৪১ এ।

রাজ্যসভার মোট আসন সংখ্যা ২৪৫। তার মধ্যে ১০০-র কাছাকাছি আসন দখলে রেখেছে এনডিএ। বিজেপি ঘনিষ্ঠ দলদের জুড়লে রোখা যাবে না মোদীর দলকে। বিজেপি ঘনিষ্ঠ এআইডিএমকে (৯), বিজেডি (৯), ওয়াইএসআর কংগ্রেস (৬) ও অন্যান্য ছোট আঞ্চলিক দলগুলির সদস্যদের জুড়লে বিজেপিকে রোখে কার সাধ্য? রাজ্যসভায় সংখ্যালঘু হওয়ায় ২০১৪ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত একাধিকবার বিল পাশ করাতে বাধার মুখে পড়তে হয়েছে মোদী সরকারকে। কিন্তু এবার রাজ্যসভায় বিল পাশ করতে আর বাঁধা রইল না বিজেপির।

রাজ্যসভার ৬১টি আসনে নির্বাচনের নির্ঘন্ট ঘোষণা করেছিল নির্বাচন কমিশন। তবে করোনার জেরে বিঘ্নিত হয় গোটা প্রক্রিয়া। এই ৬১টি আসনে ৪২ জন সদস্য বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়লাভ করেছিলেন। তার মধ্যে ৮জন বিজেপির। কংগ্রেস ও ওয়াইএসআর কংগ্রেসের ৪ জন করে সদস্য ছিলেন।

গেরুয়া শিবির কিন্তু মধ্যপ্রদেশ ও গুজরাটে ফায়দা তুলেছে কংগ্রেসে ভাঙন ধরিয়ে সবমিলিয়ে ১৭টি আসন জিতেছে বিজেপি ও কংগ্রেস ৯টি। বিজেডি ৪,তৃণমূল ৪,জেডিইউ ৩,এআইডিএমকে ৩,ডিএমকে ৩,এনসিপি ২,আরজেডি ২,টিআরএস ২,অন্যান্য দল ৩টি করে আসন জিতেছে।

কংগ্রেস যদিও বিজেপির বিরুদ্ধে কারচুপির অভিযোগ এনেছে। যদিও রাজ্যসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা নেই বিজেপির। শরিক ও বন্ধু দলগুলির উপরেই এখনও নির্ভরশীল হতে হবে তাদের।

You might also like
Leave a Comment