দেশ

একাধিক সিম কার্ড ব্যবহার করেন? পড়তে পারেন বড় বিপদে, সাবধান! কড়া ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার

একইসঙ্গে কতগুলি সিমকার্ড ব্যবহার করেন আপনি। এবার নজর রাখবে সরকার। একাধিক সিম ব্যবহারকারীদের এবার আর রেয়াত করা হবে না, এমনটাই জানানো হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে।

সরকারের তরফে ঘোষণা করা হয়েছে যে কোনও ব্যক্তির কাছে যদি অনেকগুলি সিম কার্ড থাকে, তাহলে তাঁর বিরুদ্ধে সরকার ব্যবস্থা নেবে। সেক্ষেত্রে প্রত্যেকটি সিমের বিষয়ে ডিপার্টমেন্ট অফ টেলি কমিউনিকেশনের তরফে যাচাই করা হবে। যদি দেখা যায় যে কোনও সিমের ভেরিফিকেশন করানো নেই, তাহলে একটি সিম রেখে বাকিগুলি নিষ্ক্রিয় করে দেওয়া হবে। এমনটাই জানানো হয়েছে ডিপার্টমেন্ট অফ টেলি কমিউনিকেশন কর্তৃপক্ষের তরফে।

সরকারের নতুন নির্দেশ অনুযায়ী, আপনার কাছে থাকা একাধিক সিমের যদি ভেরিফিকেশন না করা থাকে, তাহলে প্রথমে গ্রাহককে অপশন দেবে ডিপার্টমেন্ট অফ টেলি কমিউনিকেশন। কোন সিমটি গ্রাহক রাখতে চান তা জানতে চাওয়া হবে তাদের থেকে। পরবর্তীকালে সেই সিমটি চালু রেখে বাকিগুলি নিষ্ক্রিয় করে দেওয়া হবে।

সূত্রের খবর অনুযায়ী, বিরক্তিকর কল, আর্থিক অপরাধ, স্বয়ংক্রিয় কল ও প্রতারণামূলক কলের ঘটনা ক্রমেই বাড়ছে। তা নিয়ন্ত্রণ করতেই এবার এই কড়া সিদ্ধান্তের পথে হাঁটছে সরকার।

শুধু তাই-ই নয়। ডিপার্টমেন্ট অফ টেলি কমিউনিকেশনের নির্দেশ অনুযায়ী, এবার থেকে সিমের বিষয়ে আরও শক্ত হতে হবে টেলিকম অপারেটরদের। কানেকশন নেওয়া সত্ত্বেও ব্যবহার হয় না এরকম সিমগুলিকেও সরাতে বলেছে ডিপার্টমেন্ট অফ টেলি কমিউনিকেশন।

নতুন এই নির্দেশ অনুযায়ী কোনও ব্যক্তির সিমে কল বা ডেটা সার্ভিস বন্ধ করে দেওয়ার আগে তাঁকে ৩০ দিন সময় দেওয়া হবে। ইনকামিং কল বন্ধ হওয়ার আগে ৪৫ দিন সময় দেওয়া হবে। এই সময়ের মধ্যে সার্ভিস প্রোভাইডার গ্রাহককে নিজের পছন্দের সিম বেছে নেওয়ার ও সিমের ভেরিফিকেশন করিয়ে নেওয়ার সুযোগ দেবে। তা না হলে পরবর্তী ৬০ দিনের মধ্যে সিমগুলি নিষ্ক্রিয় হয়ে যাবে।

ফোনের কল বা নানান অপরাধমূলক কাজ এড়াতে এই ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার। তবে এই কড়া ব্যবস্থা তাদের ক্ষেত্রেই নেওয়া হবে যারা ৯টির বেশি সিমকার্ড ব্যবহার করেন। জম্মু-কাশ্মীর ও উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলির ক্ষেত্রে এই সিম রাখার সর্বোচ্চ সংখ্যা হল ৬। তবে এর থেকে কম সংখ্যার সিম ব্যবহার করলে আপনার ভয়ের কোনও কারণ নেই।

Related Articles

Back to top button