সব খবর সবার আগে।

ফের গরহাজিরা ছত্রধরের, কড়া পদক্ষেপের সিদ্ধান্ত এনআইএ-এর

ফের একবার আদালতে হাজিরার দিন উপস্থিত হলেন না সদ্য পদ পাওয়া তৃণমূলের রাজ্য সম্পাদক ছত্রধর মাহাতো। আজ ব্যাঙ্কশাল কোর্টে তার মামলার শুনানি ছিল। কিন্তু ফের অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে আদালতে হাজিরা এড়ালেন তৃণমূল নেতা। কিন্তু তার আইনজীবীর মত অনুযায়ীই আজকের দিনে হাজিরার দিনক্ষণ ঠিক করা হয়েছিল। এরপর কড়া আইনির পথেই এগোতে পারে এনআইএ।

২০০৯ সালে রাজধানী এক্সপ্রেস আটকানো ও চালককে অপহরণ করার তদন্তে এর আগেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় মাহাতোকে। পাল্টা এনআইএ-এর মামলার যৌক্তিকতা নিয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন মাহাতো। এরই মাঝে আরও অন্য দুটি মামাল্র পুনর্তদন্তের জন্য কলকাতার বিশেষ আদালতে আবেদন জানায় এনআইা। সেই আবেদন মঞ্জুর হতেই তাদের তদন্ত শুরু হয়।

এর আগে গত ২৫ ও ২৬শে আগস্ট মাহাতোকে জেরা করে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। প্রায় দশ বছরের পুরনো কতগুলি মামলায় ছত্রধরের নাম জড়িয়েছে, এই বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে পাঠানো হয় তাকে।

উল্লেখ্য, ২০০৯ সালের ১৪ই জুন লালগড়ের ধরমপুরে খুন হন সিপিএম নেতা প্রবীর মাহাতো। সেই খুনের ঘটনায় ছত্রধর মাহাতোকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ। এরপর ২০০৯ সালের শেষের দিকে দিল্লি-ভুবনেশ্বর রাজধানী এক্সপ্রেসে অপহরণের ঘটনাতেও তার নাম উঠে আসে। এই বিষয়গুলিতে আরও পরিষ্কার ধারণা পেতে মাহাতোকে জিজ্ঞাসাবাদ করে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা।

এছাড়া, পিপলস কমিটি এগেইনস্ট পোলিস অ্যাট্রোসিটিস-এর সক্রিয় সদস্য ছিলেন মাহাতো। এই নিয়েও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ফের তাকে ডেকে পাঠানো হয় এনআইএ-র পক্ষ থেকে কিন্তু একের পর এক হাজিরার তারিখ উপেক্ষা করে যাচ্ছেন তিনি। এরপর কঠোর কোনও পদক্ষেপের কথা চিন্তা করছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা।

প্রসঙ্গত, জঙ্গলমহলের একদা নায়ক ছত্রধর মাহাতো দীর্ঘ কারাবাস কাটিয়ে ফেরার পরেই রাজনীতিতে প্রবেশ করেন। সরাসরি তৃণমূলের রাজ্য কমিটিতে নিজের জায়গা পাকা করে নিয়েছেন মাহাতো।

You might also like
Comments
Loading...
Share