সব খবর সবার আগে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় সরকারের সমালোচনা করলেই বিপদ, আইডি শেয়ার করতে হবে সরকারের সঙ্গে। জওয়ানদের জানাল CISF!

বিভিন্ন সময় সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে দেখা গেছে জওয়ানদের। আর বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই মাধ্যম হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া বা বলতে পারেন ফেসবুক‌ই। আর এবার Central Industrial Security Force (CISF) জাওয়ানদের জানাল সোশ্যাল মিডিয়ায় সরকারের সমালোচনা করা চলবে না। আর অন‍্যথায় শৃঙ্খলাভঙ্গের দায়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। শুক্রবার প্রকাশ করা সোশ্যাল মিডিয়া গাইডলাইনস নিয়ে ইতিমধ‍্যেই শুরু হয়েছে বিতর্ক।

এই নয়া নিয়মাবলী জানাচ্ছে জ‌ওয়ানদের সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টের ডিটেইলস শেয়ার করতে হবে অফিসের সঙ্গে। কোনও বেনামে অ্যাকাউন্ট চালানো যাবে না। কোনও অবস্থাতেই সরকারের নীতির সমালোচনা করা চলবে না। তাহলেই কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আর এই সিদ্ধান্তে রীতিমতো ক্ষিপ্ত আধাসেনা বাহিনী। অনেকেরই মতে এটা অন্যায়। এই নীতি নিয়ে সিআইএসএফ প্রধান বা পিআরও কিছু মন্তব্য করেনি। কিন্তু নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কম্যান্ডার জানিয়েছেন এই সিদ্ধান্ত সম্পূর্ণ অযৌক্তিক ও হঠকারী। তাহলে টুজি কানেকশন ও বেসিক ফোন ব্যবহার করলেই হল, স্মার্টফোন দিয়ে কী করব, বলেন ক্ষুব্ধ অফিসার।আরেক কম্যান্ড্যান্ট পদমর্যাদার অফিসার বলেন যে সবাই পরিবারের থেকে কতমাস দূরে থাকে। সোশ্যাল মিডিয়াতেই একটু বিনোদন বা নিজের মত প্রকাশ করা যেত। সেটাও কেড়ে নেওয়া হচ্ছে।

তবে এই নীতির স্বপক্ষে থাকা এক অফিসার জানান কাউকে ফেসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রাম বা অন্য কোনও সোশ্যাল সাইট ব্যবহার করা থেকে আটকানো হচ্ছে না। শুধু নিরাপত্তার স্বার্থে আইডি নেওয়া হচ্ছে কারণ অনেক সময় শত্রু দেশ জওয়ানদের ঠকিয়ে তথ্য নেওয়ার চেষ্টা করে।

সিআইএসএফ তাঁদের নয়া সোশ্যাল মিডিয়া নীতিতেও সেই একই কথা বলেছে। বারবার বলা সত্ত্বেও বাহিনীর লোকেরা সংবেদনশীল তথ্য শেয়ার করছেন ও সরকারের নীতির বিরোধিতা করছেন, বলে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে।

সোশ্যাল মিডিয়া থেকে দেশের নিরাপত্তার ঝুঁকি আছে, এই কথা বলে সিআইএসএফ অ্যাকাউন্ট আইডি সবাইকে শেয়ার করতে বলেছে । এমনকী আইডি বদল করলে বা নতুন করে বানালেও সংশ্লিষ্ট দফতরকে জানাতে হবে। বেনামে আইডি করা যাবে না। সরকারকে কোনও বিষয়ে সমালোচনা করতেও সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করা যাবে না বলে গাইডলাইনসে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

You might also like
Leave a Comment