সব খবর সবার আগে।

BREAKING: জোর করে লখিমপুরে ঢোকার চেষ্টা, ৩০ ঘণ্টা আটকে থাকার পর গ্রেফতার প্রিয়াঙ্কা গান্ধী

গ্রেফতার হলেন কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। গত রবিবার রাত থেকে উত্তরপ্রদেশের সীতাপুর গেস্টহাউসে কার্যত বন্দি ছিলেন তিনি। শেষ পর্যন্ত ৩০ ঘণ্টা আটক থাকার পরে পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করে। তাঁর বিরুদ্ধে ১৪৪ন ধারা ভঙ্গের অভিযোগ আনা হয়েছে।

গত রবিবার গাড়ির চাকায় পিষ্ট হয়ে মৃত্যু হয় ৪ জন কৃষকের। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের লখিমপুরের খেড়িতে। এই ঘটনায় অভিযোগ ওঠে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ছেলের বিরুদ্ধে। সেদিন রাতেই লখিমপুরে যাওয়ার চেষ্টা করেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। তখনই তাঁকে আটকায় পুলিশ।

এই কৃষক মৃত্যুর ঘটনায় রীতিমতো রণক্ষেত্রে পরিণত হয় লখিমপুর।  আর এর জেরে সংঘর্ষের কারণে প্রাণ হারান আরও ৪ কৃষক-সহ মোট ৮ জন। সেদিন রাতেই উত্তরপ্রদেশের বিশেষ দায়িত্বপ্রাপ্ত কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী লখিমপুর যাওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু তাঁকে লখিমপুরে ঢোকার আগেই সীতাপুরে আটকায় পুলিশ। সেখানকার এক গেস্ট হাউসে আটক করা হয় তাঁকে। সেখানেই অনশন শুরু করে দেন। প্রধানমন্ত্রী মোদীর উদ্দেশে আজ, মঙ্গলবার টুইট করার পাশাপাশি ভিডিও বার্তাও দেন প্রিয়াঙ্কা।

এদিকে মৃত কৃষকদের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে। সেই রিপোর্ট অনুযায়ী, মৃত চার কৃষকের কারও শরীরেই গুলির আঘাতের চিহ্নের সন্ধান মেলেনি। রিপোর্টে বলা হয়েছে যে ধাক্কাধাক্কির ফলে হওয়া অতিরিক্ত রক্তপাতের কারণেই তাঁদের মৃত্যু হয়েছে।

এই চার কৃষকের হত্যায় নাম জড়িয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রর ছেলে আকাশ মিশ্রর বিরুদ্ধে। তবে অজয় মিশ্রের দাবী তাঁর ছেলের সেদিন গাড়িতে ছিলই না। এছাড়া তাঁর পাল্টা দাবী, সেদিন চার কৃষক ছাড়াও আরও ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন ৩ জন বিজেপি কর্মী ও গাড়ির চালক।

You might also like
Comments
Loading...