দেশ

নিজের রক্তে এক কাশ্মীরি এবং তার সন্তানের প্রাণ বাঁচালেন এক সিআরপিএফ জওয়ান

কাশ্মীরে সিআরপিএফ জওয়ানদের ওপর কাশ্মীরি স্থানীয় লোকেদের ক্ষোভের কোনো শেষ নেই। বারবারই তারা অভিযোগ করে এসেছেন যে সিআরপিএফ জওয়ানরা নিরীহ কাশ্মীরিদের হত্যা করেছে, অত্যাচার করেছে। অনেক সময় সিআরপিএফ জওয়ানদের ওপর হামলাও করে থাকেন কিছু কাশ্মীরি স্থানীয়রা। কিন্তু শেষ অবধি সেই স্থানীয় কাশ্মীরিরাই এবারে তাদের জীবন বাঁচাতে দ্বারস্থ হলেন সিআরপিএফ জওয়াদের নিকট।

আরও পড়ুন – উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে সরিয়ে দেওয়া হলো কাশ্মীর থেকে।

সূত্রের খবর, শ্রীনগরে প্রসবের সময় অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরণে আশঙ্কাজনক অবস্থা হয় এক কাশ্মীরি তরুণীর। শুধু তাই নয়, জটিল প্রসব প্রক্রিয়ায় সদ্যজাত শিশুটির অবস্থাও হয়ে দাঁড়ায় আশঙ্কাজনক। সেসময় অন্যান্য কাশ্মীরিরা তাদের সাহায্যে এগিয়ে না আসায় বাধ্য হয়ে সেই তরুণীর বাড়ির লোক যোগাযোগ করে সিআরপিএফের হেল্পলাইন-এ।

আরও পড়ুন – পর পর বিস্ফোরণে কেঁপে উঠলো কলম্বো

সাহায্যে এগিয়ে আসেন ৫৩ নম্বর ব্যাটালিয়ানের জওয়ান গোহিল শৈলেশ৷ এই সিআরপিএফ জওয়ান চটজলদি হাসপাতালে পৌঁছে নিজের রক্ত দান করে প্রাণে বাঁচান সেই কাশ্মীরি তরুণী এবং তার শিশুকে। সিআরপিএফ-এর তরফ হতে এই ঘটনা টুইট করে জানাতেই দেশের বিভিন্ন মহল থেকে প্রশংসায় ভরিয়ে দেওয়া হয় সেই সিআরপিএফ জওয়ানকে।

Related Articles

Back to top button