দেশ

করোনা মোকাবিলায় ভিক্ষা করে দান করলেন ৯০ হাজার টাকা, গোটা দেশের কাছে গর্বের পাত্র

কথায় আছে দান করার জন্য মনটাই হল আসল। এখানে ধনী-গরীব কোন কিছুই বিষয় নয়। একজন ভিখারি-এরও দানের ইচ্ছা থাকতে পারে। আর এই ঘটনাকে সত্য করে এক ভিখারি করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য দিলেন ৯০ হাজার টাকা। উচ্চ ধনী শ্রেণীর মানুষ এবং নিম্ন মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মানুষের পাশাপাশি তিনিও এই মহামারীর পরিস্থিতিতে দেশের পাশে দাঁড়িয়েছেন। আর এই মহৎ কাজের জন্য তাকে জেলাশাসকের কাছে নিয়ে গিয়ে সম্মানিত করা হয়।

কে ওই ভিখারি? তার নাম নাম পুলপান্ডিয়ান, তিনি তামিলনাড়ুর মাদুরাইয়ের তুতিকরণ জেলার বাসিন্দা। করোনা মহামারীর শুরুর সময়ে তিনি মুখ্যমন্ত্রীর তহবিলে ১০০০০ টাকা দান করেছিলেন। এর পরও একই রকম ভাবে আরোও ৮ বার জেলাশাসকের দপ্তরে গিয়ে প্রত্যেকবারই ১০০০০ টাকা করে দান করেন।

উল্লেখ্য, তার এই দান করার মনোবৃত্তি শুধু করোনা পরিস্থিতির সময় তৈরি হয়নি, এইকাজ তিনি বহুদিন ধরে করে আসছেন। তিনি তাঁর ভিক্ষার টাকা দিয়ে টেবিল, চেয়ার কেনা আর জলের সুবিধার জন্য সরকারি স্কুলে দান করতেন।

১৫ ই আগস্ট অর্থাৎ স্বাধীনতা দিবসের দিন ওই ব্যক্তিকে পুরস্কার দেওয়ার কথা হলেও, তাঁকে অনেক খোঁজ করেও খুঁজে পাওয়া যায়নি। কারণ তিনি ভিখারি মানুষ কখনো এক জায়গায় থাকেন না, চারিদিকে ঘুরে বেড়ান। গত সোমবার পুলপান্ডিয়ান আবার টাকা জমা দিতে আসে জেলাশাসকের অফিসে, তখনই ওনাকে সোজাসুজি জেলা শাসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হয় এবং সম্মানিত করা হয়। একজন ভিখারি মানুষ তার ভিক্ষার প্রায় ৯০% দান করেছেন করোনা আক্রান্তদের জন্য। তার এই অবদান সারা ভারত জুড়ে প্রশংসিত হয়েছে। তার আদর্শে আদর্শিত হয়ে অনেকেই যেন দানে ব্রতী হন সেই আশা করা যায়।

প্রতিবেদনটি লিখেছেন – অন্তরা ঘোষ

Related Articles

Back to top button