দেশ

দিল্লির পথে দেবেন্দ্র ফড়নবীশ, সাক্ষাৎ করতে পারেন অমিত শাহ্‌’র সঙ্গে, নতুন মহারাষ্ট্র সরকার নিয়ে আলোচনা? বাড়ছে জল্পনা

গত এক সপ্তাহ হতে চলল মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) রাজনীতি উত্তাল। বেশ সংকটের মুখে শিবসেনা (Shiv Sena)। মহারাষ্ট্রের জোট সরকার মহা বিকাশ আঘাড়ি (Maha Vikash Aghari) দলের মধ্যে ভাঙন দেখা দিয়েছে। মন্ত্রী একনাথ শিন্ডে (Eknath Shinde) বেশ কিছু বিধায়কদের নিয়ে বিদ্রোহ ঘোষণা করেছেন। এর জেরে মহারাষ্ট্র সরকারের পতন হতে পারে বলে আশঙ্কা করছে অনেকেই।

এই রাজনৈতিক সংকটের মধ্যেই এবার দিল্লি উড়ে যাচ্ছেন মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা দেবেন্দ্র ফড়নবীশ। সূত্রের খবর অনুযায়ী, দিল্লি গিয়ে তিনি সাক্ষাৎ করতে পারেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ্‌’র সঙ্গে। দেবেন্দ্র ফড়নবীশের এই দিল্লি যাত্রা নিয়ে বেশ জল্পনা শুরু হয়েছে। শাহ্‌’র সঙ্গে সাক্ষাতে মহারাষ্ট্রের রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হতে পারে বলেই মনে করা হচ্ছে।

শেষবার যখন ফড়নবীশ দিল্লি যান, সেই সময় তিনি বৈঠক করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ভূপেন যাদবের সঙ্গে। সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মহারাষ্ট্রের ইনচার্জ সি টি রবি। এদিকে গতকাল, সোমবারই মহারাষ্ট্রের বিদ্রোহী বিধায়কদের সদস্যপদ খারিজের উপর স্থগিতাদেশ জারি করেছে সুপ্রিম কোর্ট। আর এরপরই দেবেন্দ্র ফড়নবীশের এই দিল্লি যাত্রা যে বেশ তাৎপর্যপূর্ণ, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

জানা যাচ্ছে, এই সফরে অমিত শাহ্‌’র পাশাপাশি বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার সঙ্গেও সাক্ষাৎ করতে পারেন ফড়নবীশ। বিরোধীদের দাবী ছিল মহারাষ্ট্রের এই রাজনৈতিক সংকটের পিছনে বিজেপির হাত রয়েছে। তবে গেরুয়া শিবিরের তরফে তা কখনই মেনে নেওয়া হয়নি। তারা বরং বলেছে যে এটি পুরোটাই শিবসেনার অভ্যন্তরীণ বিষয়।

বলে রাখি, গতকাল মহারাষ্ট্রের বিদ্রোহী বিধায়কদের সদস্যপদ খারিজের আবেদনের উপর সুপ্রিম কোর্ট স্থগিতাদেশ জারি করে। তবে অন্যদিকে, একনাথ শিন্ডে বেশ ঠিকঠাকই রয়েছেন। সুপ্রিম কোর্টের এই নির্দেশের পর বিদ্রোহী বিধায়কদের সঙ্গে বৈঠকও করেছেন তিনি। শোনা যাচ্ছে, তিনি নাকি দ্রুতই গুয়াহাটি থেকে মুম্বই ফিরতে পারেন।  

Related Articles

Back to top button