দেশ

অবিশ্বাস্য! মাটি খোঁড়ার সময়ই মিলল ৬০ লক্ষ টাকার হীরে, রাতারাতি লক্ষপতি গরীব কৃষক

ভগবান যখন সহায় হন, তখন যেন এক নিমেষে কেমন পারিপার্শ্বিক সব কিছু বদলে। কেউ রাজা থেকে হয়ে যায় ফকির আবার কখনও কখনও হঠাৎই কপাল খুলে যায় কোনও গরীব অসহায় মানুষের। যেমনটা ঘটল মধ্যপ্রদেশের পান্না জেলার এক দরিদ্র কৃষকের ক্ষেত্রে। মাটি কোপানোর সময় আচমকাই তিনি পেলেন ৬০ লক্ষ টাকার হীরে।

কৃষকের নাম লখন সিংহ। জানা গিয়েছে, চাষবাস করেই নিজের সংসার চালান দরিদ্র ওই কৃষক। চাষের জন্য এক টুকরো জমি লিজে নিয়েছিলেন ৪৫ বছরের লখন সিংহ। কিন্তু কে জানত, ওই এক টুকরো জমিই তাঁর কপাল খুলে দেবে। জমিতে মাটি কোপানোর সময় হঠাৎই একটা চকচকে পাথর নজরে পড়ে লখিনের। প্রথমে বুঝে উঠতে না পারলেও, পরে ভালোভাবে পরীক্ষা করে তিনি বুঝতে পারেন, এ আসলে যে সে পাথর নয়। এ আসল হীরের এক খণ্ড। পরে তা পরীক্ষা করলে জানা যায়, তা ১৪.৯৮ ক্যারেট হীরে। এই ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর থেকেই হুলস্থূল পড়ে যায় সারা এলাকায়।

সূত্রের খবর অনুযায়ী, এই এক খণ্ড হীরের দাম ৬০ লক্ষ টাকারও বেশি। গত শনিবারই এই হীরে নিলামে উঠেছে। জানা গিয়েছে ৬০.৬ লক্ষ টাকায় বিক্রি হয়েছে হীরের খণ্ডটি।

লখন নামের ওই কৃষক একটি সাক্ষাৎকারে জানান, “যে মুহূর্তে আমি হীরেটা পেয়েছিলাম, তা কখনও ভুলতে পারব না”। এই হীরেকে ভগবানের অশেষ কৃপা ও আশীর্বাদ বলেই মনে করছেন লখন। তাঁর কথায়, উপরওয়ালার ইচ্ছা ছাড়া কোনও কিছুই সম্ভব নয়। তিনি এও জানান যে, এই হীরে পাওয়ার পর তাঁর জীবনে আমূল পরিবর্তন এসেছে। এই অর্থ দিয়ে এবার নিজের চার সন্তানকে ভালভাবে লেখাপড়া করাতে পারবেন ও ভালোভাবে মানুষ করতে পারবেন বলে আশাবাদী লখন।

Related Articles

Back to top button