সব খবর সবার আগে।

৫০ বছরের পুরনো হনুমান মন্দির ভেঙেছিল কেজরিওয়াল সরকার! রাতারাতি মন্দির দাঁড় করালো বজরঙ্গবলীর ভক্তরা

দিল্লির নগর নিগম হাইকোর্টের নির্দেশে ৫০ বছরের পুরনো হনুমান মন্দির ভেঙে ফেলা হয়েছিল। এই ঘটনা মেনে নেয়নি বজরঙ্গবলীর ভক্তরা। রাতারাতি উঠল মন্দির। তবে এই মন্দির কে বানিয়েছে, আর কীভাবে একরাতেই বানিয়ে ফেলা হল, সেটা জানা যায়নি। অন্যদিকে, দিল্লীর নগর নিগম জানিয়েছে যে, এই মন্দির হনুমানজির ভক্তরা বানিয়েছে l

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, চলতি বছরের প্রথম মাস থেকেই চাঁদনি চৌকের সৌন্দর্যায়ন করা শুরু হয়েছে। আর সেই কারণেই হনুমান মন্দিরটিকে ভেঙে ফেলা হয়েছিল। আর এর ফলে দিল্লীর কেজরিওয়াল সরকারের সমালোচনার মুখে পড়তে হয়। এই ইস্যুতে দিল্লী নগর নিগমের বরিষ্ঠ আধিকারিক বলেছিলেন যে, আদালতের আদেশানুসারে মন্দিরটিকে ভাঙা হয়েছে। কয়েকটি মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, ভক্তরা নিজেরা চাঁদা দিয়ে মন্দিরটিকে পুনরায় নির্মাণ করেছে। এছাড়াও নবনির্মিত এই মন্দিরে পুরনো হনুমান মূর্তিটিকেই স্থাপনা করা হয়েছে।

এই ঘটনা নিয়ে উত্তর দিল্লীর মেয়র জয় প্রকাশ ট্যুইট করে বলেছেন যে, এই মন্দিরটি রাম আর হনুমানের ভক্তরা মিলে বানিয়েছে। নতুন এই মন্দিরটিকে ইট-পাথরের বদলে স্টিল দিয়ে বানানো হয়েছে। আর মন্দিরে পুরনো ভগবানের মূর্তিটিকেই স্থাপনা করা হয়েছে। নতুন মন্দিরে পুজো দেওয়ার জন্য ভক্তদের ঢলও নামছে।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...