দেশ

স্বাধীনতা দিবসের দিন থেকেই গড়াবে লোকাল ট্রেনের চাকা, টিকার দুটি ডোজ নেওয়া বাধ্যতামূলক

স্বাধীনতা দিবস থেকেই আরও বেশি সংখ্যক মানুষের জন্য চালু হচ্ছে লোকাল ট্রেন, এমনটাই ঘোষণা করা হয়েছে সরকারের পক্ষে। তবে লোকাল ট্রেনের ওঠার জন্য করোনার টিকার দুটি ডোজ নেওয়া বাধ্যতামূলক। তবেই আগামী ১৫ই আগস্ট থেকে লোকাল ট্রেনে উঠতে পারবে মহারাষ্ট্রের মানুষ।

গতকাল, রবিবার জানা গিয়েছে, করোনার টিকার দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার ১৪ দিন পর থেকে লোকাল ট্রেনে উঠতে পারবে সাধারণ মানুষ। বিশেষভাবে তৈরি একটি অ্যাপের সাহায্যে লোকাল ট্রেনে ওঠার পাসের জন্য আবেদন করতে পারবে তারা। স্থানীয় ওয়ার্ড অফিস থেকে এই পাস মিলবে। যাদের কাছে স্মার্টফোন নেই, তারা অফলাইনে পাসের জন্য আবেদন করতে পারবেন বলেও জানা গিয়েছে।

তবে লোকাল ট্রেন চালু হচ্ছে মহারাষ্ট্রে। মুম্বই লোকালে আপাতত সাধারণ জনগণের ওঠার অনুমতি নেই। শুধুমাত্র জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত কর্মী এবং সরকারি কর্মীরাই ট্রেনে উঠতে পারছেন। উদ্ধব ঠাকরে বলেন, “টিকাকরণ প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত আমাদের সতর্কভাবে পা ফেলতে হবে”। এর সঙ্গে তিনি আরও বলেন, “আপাতত মুম্বইয়ের ১৯ লাখ মানুষ করোনা টিকার দুটি ডোজ পেয়ে গিয়েছেন। অর্থাৎ তাঁদের সম্পূর্ণ টিকাকরণ প্রক্রিয়া শেষ হয়ে গিয়েছে”।

লোকাল ট্রেনে বিধিনিষেধ কিছু শিথিল করার পাশাপাশি উদ্ধব ঠাকরে জানান, দোকান, শপিং মল, রেস্তোরাঁ, ধর্মীয় স্থান খোলার বিষয়ে ভাবনাচিন্তা চালাচ্ছে সরকার। আজ, সোমবার টাস্ক ফোর্সের বৈঠকের পর কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে।

মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “তৃতীয় ঢেউয়ের প্রস্তুতি হিসেবে শিল্প সংস্থা এবং বেসরকারি সংস্থাগুলিকে বিভিন্ন সময়সীমা মেনে অফিস চালানো এবং হাসপাতাল তৈরির আর্জি জানিয়েছি”। এর সঙ্গে তিনি বলেন, “আমরা কয়েকটি গতিবিধি শিথিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। কিন্তু করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লে আবারও লকডাউন কার্যকর করা হবে। জেলায় অক্সিজেন শয্যার প্রাপ্যতার উপর ভিত্তি করে সেটা নির্ভর করবে”।

Related Articles

Back to top button