দেশ

মুখোমুখি প্রধানমন্ত্রী-মুখ্যমন্ত্রী! মোদীর সঙ্গে ৪৫ মিনিটের বৈঠক সারলেন মমতা, নিয়ে গেলেন বাংলার মিষ্টি, হলুদ গোলাপ

সম্প্রতিই দিল্লি সফরে গিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মূলত নীতি আয়োগের বৈঠকে যোগ দিতে গেলেও, মুখ্যমন্ত্রীর এই সফরে রয়েছে আরও কিছু কর্মসূচি। এসবের মধ্যেই একটি ছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠক। মোদী ও মমতার এই বৈঠকের দিকে ওত পেতে ছিল দেশবাসীও। প্রায় ৪৫ মিনিট ধরে মোদীর সঙ্গে বৈঠক সারলেন মমতা।

প্রসঙ্গত, এই মুহূর্তে বেজায় উত্তাল বাংলার রাজনীতি। একদিকে রাজ্য সরকার রাজ্যের বকেয়া টাকা না দেওয়ার জন্য কেন্দ্রকে বারবার তোপ দেগে চলেছে। আর অন্যদিকে, রাজ্যের নানান দুর্নীতির মামলায় তৃণমূলের একধিক নেতা-মন্ত্রীর নাম উঠে আসছে বারবার। ইতিমধ্যেই এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতির জেরে ইডির হাতে গ্রেফতার হয়েছেন প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এহেন পরিস্থিতিতে মোদী-মমতার বৈঠকের দিকে নজর ছিল সকলের।

নানান কর্মসূচি নিয়েই দিল্লি গিয়েছেন মমতা। তাঁর সঙ্গেই দিল্লি গিয়েছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও। তৃণমূল সূত্রে খবর, বাংলায় কেন্দ্র সরকারের বিপুল পরিমাণ বকেয়ার পাশাপাশি ট্যাক্স নিয়ে মোদী সরকারের বঞ্চনার কথা প্রধানমন্ত্রীকে জানাবেন মমতা।

অন্যদিকে, বিরোধীদের তরফে কটাক্ষ করা হয় তৃণমূলকে এই প্রসঙ্গে। তাদের মতে, রাজ্যে যে একের পর এক দুর্নীতির বিষয় উঠে আসছে, রাজ্যের নানান মামলায় যে ইডি-সিবিআই তদন্ত করছে, পার্থর গ্রেফতারি, এসব কিছু ধামাচাপা দেওয়ার জন্যই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কৌশল করে এমন বিষয় প্রধানমন্ত্রীর সামনে তুলে ধরতে চাইছেন।

এদিন প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে ৪৫ মিনিটের বৈঠক হয় মোদী ও মমতার মধ্যে। এই সম্পর্কিত একটি পোস্ট করা হয়েছে যাতে দেখা গিয়েছে যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও নরেন্দ্র মোদীর পাশের টেবিলে হলুদ গোপালের তোড়া রাখা। সূত্রের খবর, মোদীকে সেই ফুলের তোড়া ও বাংলার মিষ্টি উপহার দেন মমতা। জানা গিয়েছে, এদিন মমতা রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর সঙ্গেও সাক্ষাৎ করবেন।  

Related Articles

Back to top button