দেশ

ফুচকা নিয়ে বচসা! বকেয়া ২০ টাকা চেয়েছিলেন ফুচকাওয়ালা, টাকা না মিটিয়ে উল্টে ফুচকাওয়ালাকেই ছুরি দিয়ে কোপালেন খদ্দের

ফুচকা এমন একটা খাবার যা সকলেই খেতে বেশ ভালোবাসেন। কিন্তু সেই ফুচকা খাওয়া নিয়েই যে রক্তারক্তি কাণ্ড ঘটে যেতে পারে, তেমনটা হয়ত কেউ আঁচও করতে পারেন নি। ফুচকা খাওয়া নিয়ে বচসার জেরে ছুরি দিয়ে ফুচকাওয়ালাকে কোপালেন এক ব্যক্তি। আপাতত আহত ফুচকাওয়ালা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। অভিযুক্ত ব্যক্তি পলাতক। তাকে খুঁজছে পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে মহারাষ্ট্রের নাগপুরে। সূত্রের খবর, জয়রাম গুপ্ত নামের এক ফুচকাওয়ালার উপর হামলা করেন এক ব্যক্তি। জানা গিয়েছে, ওই ফুচকাওয়ালার কাছে প্রায়দিনই ফুচকা খেতে আসতেন হামলাকারী ওই ব্যক্তি। অনেক সময়ই টাকা মেটাতেন না তিনি। ফুচকাওয়ালা ধারে ফুচকা না দিতে চাইলেও জোর করে ফুচকা খেতেন তিনি। গতকাল, রবিবারও ফুচকা খেতে আসেন ওই ব্যক্তি। কিন্তু ফুচকাওয়ালা বলেন যে তার আগের দিনের বকেয়া ২০ টাকা মিটিয়ে দিতে আগে।

এই টাকা চাওয়া নিয়েই ওই ব্যক্তি ও ফুচকাওয়ালার মধ্যে বচসা শুরু হয়। বেশ কিছুক্ষণ ধরে চলে তর্কাতর্কি। এরপর আচমকাই ছুরি দিয়ে ওই ফুচকাওয়ালার উপর হামলা চালায় ওই ব্যক্তি। এলোপাথাড়ি কোপ মারতে থাকেন ফুচকাওয়ালার পেটে ওই অভিযুক্ত। ফুচকাওয়ালা রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়তেই ঘটনাস্থল ছেড়ে পালিয়ে যায় অভিযুক্ত।

পুলিশ সূত্রে খবর, আহত জয়রাম গুপ্ত বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। একাধিক সেলাই পড়েছে তাঁর পেটে। অভিযুক্ত ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টা করার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

এই ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান যে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি সামনের এক কারখানাতেই কাজ করেন। প্রায়দিনই বিকেলে ওই ফুচকাওয়ালার দোকানে ফুচকা খেতে আসতেন তিনি। বেশ পরিচিতিও তৈরি হয়েছিল দু’জনের মধ্যে।

কিন্তু ওই ব্যক্তি ধার করে ফুচকা খাওয়া নিয়েই শুরু হয় অশান্তি। গতকাল, রবিবার বিকেলে অভিযুক্ত ব্যক্তি যখন ফুচকা খেতে আসেন, তখন ফুচকাওয়ালা বলেন তিনি যেন তার আগে বকেয়া ২০ টাকা মিটিয়ে দেন। বাকি থাকা টাকা মেটালে তবেই ফুচকা দেবেন তিনি। সেই কথা নিয়ে বচসা ও পরে ফুচকাওয়ালাকে ছুরির কোপ মারেন ওই ব্যক্তি।

Related Articles

Back to top button