সব খবর সবার আগে।

গর্বিত সিকিউরিটি গার্ড বাবা! কঠিন পরিশ্রমে ছেলে আজ IRS অফিসার! 

দীর্ঘ লড়াই আর কঠিন পরিশ্রমের ফল আজ হাতে পেলেন, বিগত ২০ বছর ধরে লক্ষ্ণৌ বিশ্ববিদ্যালয়ে সিকিউরিটি গার্ডের চাকরি করে আসা সূর্যকান্ত। চার সন্তান সন্দীপ, প্রদীপ, স্বাতী, কুলদীপ, এবং স্ত্রী মঞ্জু দেবীকে নিয়ে তাঁর ভরা সংসার। বাবা, মা হিসেবে তাঁদের দুজনের‌ই ধারণা ছিল দারিদ্রতা দূর করতে ছেলেমেয়েদের শিক্ষিত হওয়া ভীষণ প্রয়োজন। আর তাই শত কষ্টেও নিজের ছেলেমেয়েদের পড়াশোনা করিয়ে গেছেন তাঁরা।

এত কষ্ট করার পর অবশেষে সেই দিন এলো যেদিন তাঁদের চতুর্থ সন্তান কুলদীপ ভারতের অন্যতম কঠিন পরীক্ষা ইউ.পি.এস. সি-তে সফল হয়েছেন। গোটা ভারতবর্ষে তাঁর র‍্যাঙ্ক হয়েছে ২৪২। গ্রাজুয়েশনের পর স্বপ্ন পূরণ করার লক্ষ্যে কুলদীপ নিউ দিল্লির মুখার্জি নগরে একটি ১০/১০ স্কয়ার ফিট ভাড়া বাড়িতে উঠে আসেন। এখানেই চলতে থাকে তাঁর সিভিল সার্ভিস পরীক্ষার পড়াশোনা। তবে অর্থনৈতিক অসুবিধার জন্যও তিনি এই পরীক্ষার কোচিং ক্লাস গুলি কোনও ভাবেই করতে পারেননি। বাবার সারা মাসিক রোজগার ৬,০০০ টাকা। কুলদীপকে পড়াশোনা বাবদ বাড়ি ভাড়া নিয়ে ২,৫০০ টাকার বেশি তিনি পাঠাতে পারতেন না। পড়াশোনা করার জন্য কুলদীপ এর কাছে কোন‌ও ল্যাপটপ ছিলনা। মাঝে মাঝে বই বন্ধুদের থেকে ধার করে তিনি পড়াশোনা করেছেন।

প্রথম বারের পরীক্ষায় অসফল হন কুলদীপ। তারপরে সাংঘাতিকভাবে তিনি ভেঙে পড়েন। কিন্তু হাল ছাড়েননি। তার‌ই ফল দ্বিতীয় বারের সাফল্য। বাবা-মায়ের নিরন্তর সাহস‌ই তাঁর পাথেয়। কুলদীপ চাকরি পাওয়ার পর তাঁর বাবা সূর্যকান্ত কে প্রশ্ন করা হয়, তিনি কি কুলদীপ এর চাকরি পাওয়ার পর তাঁর চাকরিটা ছেড়ে দিয়েছেন? এ প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, “কেন‌ও তিনি চাকরি ছাড়বেন? যে চাকরি একসময় তাকে খাবার দিয়েছে, তার সন্তানের স্বপ্ন পূরণ করার রসদ যুগিয়েছে সে চাকরি কখনো ছাড়া যায়!”

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
Comments
Loading...