সব খবর সবার আগে।

৯৭ শতাংশ রাজ্যবাসীই চান উত্তরপ্রদেশে লাগু হোক জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ আইন

জনসংখ্যা দিবসের দিন উত্তরপ্রদেশে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ করার জন্য মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ‘জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ বিল’ পেশ করেন। এই বিল নিয়ে রাজ্যের জনগণের কী মতামত, তা জানতে চাওয়া হয়। মতামত ইতিবাচক হলে, তবেই এই বিল রাজ্যে লাগু করা হবে এমনটাই বলা হয়েছিল।

এই জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ আইন অনুযায়ী, যে সমস্ত দম্পতির দুইয়ের বেশি সন্তান রয়েছে, তারা সরকারি প্রকল্প পাবে না। এমনকি, স্থানীয় পঞ্চায়েত নির্বাচনেও অংশ নিতে পারবেন না তারা, এমনটাই বলা হয়। তবে যোগী সরকারের এই বিলকে সমর্থন করেছেন রাজ্যের সিংহভাগ মানুষই।

আরও পড়ুন- লন্ডনেও বর্ষায় জল জমে, তাহলে কলকাতায় জল জমলে সমস্যা কোথায়, বিতর্কিত মন্তব্য করে সোশ্যাল মিডিয়ায় তোপের মুখে দেবাংশু

উত্তরপ্রদেশের জনগণ ইন্টারনেটের মাধ্যমে এই আইন সম্পর্কে নিজেদের মতামত জানিয়েছেন। প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, রাজ্যের ৯৭ শতাংশ মানুষ চান যে উত্তরপ্রদেশে এই জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ আইন লাগু হোক। আর বাকিরা এই আইনের বিরুদ্ধে।

সরকারি ওয়েবসাইটে আপলোড করা এই খসড়ায় নিজেদের মতামত জানান ৮ হাজার ৫০০ জন। এর মধ্যে ৩০০ জন এই আইনের বিপক্ষে। বাকী সকলেই এই আইনের পক্ষে রায় দিয়েছেন। তারা চাইছেন যে রাজ্যে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ আইন লাগু হোক।

এই খসড়া সংক্রান্ত প্রস্তাবের বিষয়ে নানান তথ্য প্রকাশ করেন উত্তর প্রদেশের ‘বিধি আয়োগ”-এর অধ্যক্ষ বিচারক এএন মিত্তল। তাঁর কথায়, “জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের জন্য খসড়া বিলের বিষয়ে রাজ্য আইন কমিশনে ইমেইলের মাধ্যমে প্রায় ৮,৫০০ জন তাদের সিদ্ধান্ত নথিভুক্ত করেছেন। তাদের কেউ প্রস্তাবিত আইনের সমালোচনা করেছেন এবং কেউবা আইন কমিশনের গৃহীত পদক্ষেপের প্রশংসা করেছেন”।

আরও পড়ুন- মমতাকে ‘মাফিয়া’ তকমা দিলেন কঙ্গনা, অভিনেত্রীর এই মন্তব্যকে ঘিরে সোশ্যাল মিডিয়ায় তুমুল বিতর্ক

তিনি আরও জানান, “আমরা জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ নিয়ে তৈরি খসড়ার জন্য অনেক পরামর্শ পেয়েছি। কমিশন সমস্ত ইমেই ডাউনলোড করছে। আমরা সবার পরামর্শ মাথায় নিয়ে কাজ করছি। জনতার পরামর্শ জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ আইন তৈরি করতে আমাদের সাহায্য করবে”।

You might also like
Comments
Loading...