সব খবর সবার আগে।

১০০ দিনের করোনা ডিউটি পূরণে স্বাস্থ্যকর্মীদের সরকারি চাকরিতে বিশেষ ছাড়, করোনা মোকাবিলায় বিবৃতি জারি মোদীর

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ যে হারে গোটা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে, এর জেরে এক ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা চার লক্ষতে গিয়ে ঠেকেছে। এই অবস্থায় কার্যত স্বাস্থ্য পরিকাঠামো তলানিতে এসে ঠেকেছে। পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার জন্য নানান ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। করোনা মোকাবিলার জন্য আরও বেশি সংখ্যক স্বাস্থ্যকর্মীরা ও করোনা যোদ্ধাদের সামিল করতে আজ, সোমবার একটি গুরুত্বপূর্ণ বিবৃতি জারি করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

এই বিবৃতিতে বলা হয়েছে যে স্নাতকোত্তর ডাক্তারি পরীক্ষা অন্তত চার মাস পিছিয়ে দেওয়া হবে।

স্বাস্থ্যকর্মীরা, যারা ১০০ দিনের করোনার ডিউটি সম্পূর্ণ করবেন, তাদের আগামী সরকারি চাকরিতে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

মেডিক্যাল ইন্টার্নরা তাদের শিক্ষকদের তত্ত্বাবধানে করোনা মোকাবিলায় যোগ দিতে পারবেন।

এমবিবিএসের চূড়ান্ত বর্ষের ছাত্রছাত্রীরা এবার থেকে টেলি-কনসালটেশন ও মৃদু উপসর্গযুক্ত করোনা রোগীদের চিকিৎসা করতে পারবেন। কিন্তু তা অবশ্যই করতে হবে তাদের শিক্ষকদের অধীনে থেকে।

বি.এস.সি বা জেনারেল নার্সিং অ্যান্ড মিডওয়াইফারির কোর্সে উত্তীর্ণ নার্সেরা করোনা ডিউটি করতে পারবেন। কিন্তু তা অবশ্যই করতে হবে অভিজ্ঞ চিকিৎসক ও নার্সদের তত্ত্বাবধানে থেকে।

স্বাস্থ্যকর্মীরা, যারা ১০০ দিনের করোনার ডিউটি সম্পূর্ণ করবেন, তাদের প্রধানমন্ত্রীর তরফে কোভিড ন্যাশানাল সার্ভিস সম্মানে ভূষিত করা হবে।

You might also like
Comments
Loading...