দেশ

পিছিয়েই রইল বাংলা! দেশে রেকর্ড টিকাকরণ, কিন্তু বাংলায় টিকা পেলেন মাত্র ৩ লক্ষ

কেন্দ্রের তরফে সকল প্রাপ্তবয়স্ক দেশবাসীকে বিনামূল্যে টিকা দেওয়ার কাজ শুরু হয়েছে গতকাল, সোমবার থেকে। আর প্রথমদিনই টিকাকরণে হল রেকর্ড। একদিনে সবচেয়ে বেশি মানুষ টিকা পেলেন এদিন। এদিন টিকা দেওয়া হয় ৮৫ লক্ষেরও বেশি মানুষকে যা দৈনিক টিকাকরণের দিক দিয়ে সবচেয়ে বেশি।

কিন্তু দেশের এই রেকর্ড টিকাকরণের দিন পিছিয়েই রইল বাংলা। এদিন অর্থাৎ ২১শে জুন বাংলায় টিকা পেলেন মাত্র ৩ লক্ষ ২৭ হাজার মানুষ। রাজ্যের তরফে আগেই জানানো হয়েছিল যে পর্যাপ্ত টিকা না থাকায় রাজ্যে ১৮ ঊর্ধ্বদের বিনামূল্যে টিকা দেওয়া যাবে না । তবে তা কবে থেকে শুরু হবে, তা এখনও জানা যায়নি।

এদিন, দেশে রেকর্ড টিকাকরণ হওয়ায় এ নিয়ে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এর আগে ২রা এপ্রিল দেশে রেকর্ড টিকাকরণ হয়। সেদিন টিকা পেয়েছিলেন ৪২ লক্ষ ৬৫ হাজার ১৫৭ জন। তবে গতকাল সেই রেকর্ড ভাঙে। জানা গিয়েছে, রাজ্যগুলির মধ্যে সবচেয়ে বেশি টিকাকরণ হয়েছে মধ্যপ্রদেশে। সেখানে গতকাল টিকা পেয়েছেন ১৬ লক্ষ মানুষ।

এদিন দেশের এই রেকর্ড গড়ার কারণে প্রধানমন্ত্রী সকল দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে টুইট করেন, “করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধে টিকাই আমাদের প্রধান অস্ত্র। আজকের রেকর্ড ভেঙে দেওয়া টিকাকরণ আমাকে আনন্দিত করেছে। যাঁরা টিকা পেয়েছেন, তাঁদের শুভেচ্ছা জানাই। আর যে প্রথমসারির করোনা যোদ্ধারা করোনার টিকা দিচ্ছেন, তাঁদের প্রতিও শুভেচ্ছা রইল। ওয়েল ডান ইন্ডিয়া”।

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই মোদী ঘোষণা করেন যে দেশের সকলে বিনামূল্যে টিকা পাবেন। সেই কর্মসূচীই শুরু হল গতকাল থেকে। কেন্দ্রের নতুন নিয়ম অনুযায়ী, টিকা প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলির থেকে ৭৫ শতাংশ টিকা কিনবে কেন্দ্র। বাকী ২৫ শতাংশ টিকা সংস্থাগুলির থেকেই সরাসরি কিনতে পারে বেসরকারি হাসপাতালগুলি। সেই মতেই ২১শে জুন থেকে শুরু হল ১৮ ঊর্ধ্বদের বিনামূল্যে টিকা দেওয়ার কাজ।

Related Articles

Back to top button