সব খবর সবার আগে।

স্বামী বিবেকানন্দের জন্মবার্ষিকীতে টুইট করে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন প্রধানমন্ত্রীর, দিলেন বিশেষ বার্তা, শ্রদ্ধা জানালেন সুকান্ত-শুভেন্দুও

আজ স্বামী বিবেকানন্দের ১৫৯তম জন্মবার্ষিকী। গোটা দেশে আজ পালিত হচ্ছে বিবেকানন্দের জন্মোৎসব। এই শুভদিন উপলক্ষ্যে স্বামীজির প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করে বিশেষ বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এদিন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার ও রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীও শ্রদ্ধা জানালেন স্বামীজিকে।

এদিন টুইট করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী লেখেন, “স্বামী বিবেকানন্দ আমাদের সকলের অনুপ্রেরণা। তিনি ভারতের শক্তির কথা স্মরণ করিয়ে দিয়েছিলেন। আধুনিক ভারত গঠনের জন্য তাঁর দৃষ্টিভঙ্গী ছিল সঠিক। আধুনিক ভারতের রূপকার ছিলেন তিনি। যুব সমাজের পথের দিশা দেখিয়ে তিনি দেশ গড়ার বার্তা দিয়েছিলেন। তাঁর স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে প্রত্যেককে একযোগে কাজ করতে হবে”।

টুইট করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারও। তিনি টুইটারে লেখেন, “জাতীয় যুব দিবসে প্রত্যেককে শুভেচ্ছা। স্বামী বিবেকানন্দ সকলের আদর্শ, অনুপ্রেরণা। তিনি দেশের যুব সমাজের পথপ্রদর্শক”।

এদিন স্বামী বিবেকানন্দকে শ্রদ্ধা জানান রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তিনি লেখেন, “আধ্যাত্মিক চেতনার প্রাণপুরুষ স্বামী বিবেকানন্দের জন্মজয়ন্তীতে প্রণাম। স্বামী বিবেকানন্দ বিশ্ববরেণ্য বীর সন্ন্যাসী। যুব সমাজের পথপ্রদর্শক”।

প্রসঙ্গত, ১৮৬৩ সালের ১২ই জানুয়ারি পৌষ মাসের কৃষ্ণপক্ষের সপ্তমী তিথিতে কলকাতার এক উচ্চবিত্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন স্বামী বিবেকানন্দ। ছোটো থেকেই তিনি আধ্যাত্মিক বিশ্যের প্রতি আকৃষ্ট হন। গুরু রামকৃষ্ণদেবের থেকে তিনি শেখেন যে সকল জীবের মধ্যেই ঈশ্বরের বাস। তাই জীবসেবা করার অর্থই ঈশ্বরের সেবা করা।

ভারতীয় উপমহাদেশ ঘুরে দেখেন্ম তিনি। ব্রিটিশ ভারতের আর্থ-সামাজিক পরিস্থিতি সম্পর্কে সম্যক জ্ঞান অর্জন করেছিলেন তিনি। ১৮৯৩ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গিয়ে বিশ্ব ধর্ম মহাসভায় হিন্দুধর্মের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন স্বামী বিবেকানন্দ।

১২ই জানুয়ারি স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিন প্রতি বছর রামকৃষ্ণ মিশন, রামকৃষ্ণ মঠ এবং তাদের অনেক শাখা কেন্দ্রে ভারতীয় সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য অনুসারে পালিত হয়। স্বামী বিবেকানন্দের জন্মবার্ষিকী ভারতে জাতীয় যুব দিবস “যুব দিবস” বা “স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিন” হিসাবে পূর্ণ উদ্যমে পালিত হয়।

You might also like
Comments
Loading...