সব খবর সবার আগে।

ম্যাট্রিমোনিয়াল সাইটে ১২ জন মহিলার সঙ্গে প্রেম, পরে শারীরিক নির্যাতন, গ্রেফতার অভিযুক্ত

ম্যাট্রিমোনিয়াল সাইটে প্রথমে নানান মহিলার সঙ্গে আলাপচারিতা, প্রেম, এরপর তাদের উপরই শারীরিক নির্যাতন। এই অভিযোগে গত সোমবার মুম্বইয়ের মালাড থেকে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করলেন নাভি মুম্বইয়ের পুলিশ। জানা গিয়েছে, অভিযুক্তের নাম মহেশ আলিয়াস করণ গুপ্তা। তার বয়স ৩২ বছর।

জানা গিয়েছে, ম্যাট্রিমোনিয়াল সাইটে অভিযুক্ত একাধিক ফের প্রোফাইল বানান। সেখান থেকেই একাধিক মহিলাকে প্রেমের ফাঁদে ফেলেন তিনি। তার টার্গেট ছিল বিশেষত উচ্চশিক্ষিত মহিলারা। এরপর ওই সাইটের মাধ্যমেই মহিলাদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হতেন অভিযুক্ত। চলত ফোন নম্বর আদানপ্রদান। তা এগোত সাক্ষাৎ পর্যন্ত। মহিলাদের নিয়ে ওই অভিযুক্ত কোনও পাব, বড় কোনও রেস্তোরাঁ বা শপিং মলে নিয়ে যেতেন বলে খবর।

আরও পড়ুন- সুশান্ত আমি আর সারা একসঙ্গে বসে গাঁজা খেতাম, চার্জশিটে চাঞ্চল্যকর তথ্য দিলেন রিয়া

এই বিষয়ে ডেপুটি কমিশনার সুরেশ মেনগাদে বলেন, “দেখা করার পরই মহিলাদের শারীরিক নির্যাতন করতেন অভিযুক্ত। প্রত্যেক সময় আলাদা আলাদা ফোন নম্বর ব্যবহার করতেন তিনি। সব সময় সিম কার্ড বদল করতেন। এমনকি প্রত্যেক নম্বরে আলাদা করে ওলা উবের বুক করতেন। এদিকে প্রত্যেকটা নম্বর তার নামে রেজিস্টার্ড ছিল না। কিছুদিন আগে অভিযুক্ত হ্যাকিং-র কাজের সঙ্গেও যুক্ত ছিলেন”।

পুলিশ সূত্রের খবর, এক বড় ইনস্টিটিউট থেকে পড়াশোনা করেছেন ওই অভিযুক্ত। এমনকি, বেশ মোটা অঙ্কের মাইনের চাকরিও করতেন তিনি, এমনটাও জানা গিয়েছে। ১২ জন মহিলার থেকে অভিযোগ আসার পরই এই ঘটনায় তৎপর হয় পুলিশ। এরপর গতকাল, সোমবার গ্রেফতার করা হয় তাঁকে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আপাতত তাঁকে পুলিশি হেফাজতে রাখা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...