সব খবর সবার আগে।

বাবরির পরিবর্তে যে মসজিদ তৈরী হচ্ছে, তার ভিত্তিপ্রস্তর অনুুষ্ঠানে যাবেন না, সাফ জানালেন যোগী আদিত্যনাথ!

অযোধ‍্যায় রাম মন্দিরের জাঁকজমকপূর্ণ ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনের পর‌ই যোগীর রাজ‍্যে শুরু বিতর্ক। কেন্দ্রে মুখ্যমন্ত্রী স্বয়ং। যেখানে অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভূমিপূজোর পুরোভাগে ছিলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী সেখানেই বাবরি মসজিদের পরিবর্তে যে মসজিদ তৈরী হচ্ছে, তার ভিত্তিপ্রস্তর অনুুষ্ঠানে যাবেন না, এই কথা সাফ জানিয়ে দিলেন তিনি। তাঁর এই বক্তব্য নিয়েই শুরু হয়েছে রাজনৈতিক বিতর্ক।

একটি টিভি চ্যানেলে দেওয়া সাক্ষাৎকারে যোগী বলেন যে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে আমায় যদি প্রশ্ন করেন, তাহলে আমার কোনও ধর্ম, বিশ্বাস বা সম্প্রদায়ের সঙ্গে সমস্যা নেই। কিন্তু একজন যোগী হিসাবে যদি জিজ্ঞেস করেন, আমি অবশ্যই যাব না কারণ হিন্দু হিসাবে আমার নিজের উপাসনা বিধি মানার অধিকার আছে।

প্রসঙ্গত সুপ্রিম কোর্টের রায়ে, অযোধ্যায় জমি দেওয়া হয় হিন্দুদের মন্দিরের জন্য। অন্যদিকে বিকল্প জমি দেওয়ার কথা বলা হয় মুসলমানদের। সেই বিকল্প জমিতে যে মসজিদ তৈরী হবে, সেখানেই যাওয়ার সম্ভাবনার প্রসঙ্গ ওড়ালেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী।

তাঁর কথায় তিনি অযোধ্যা মামলার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন না। তাই কোনও আমন্ত্রণ পাবেন না। আর তাই যাওয়ার প্রশ্নও নেই, বলে মনে করেন যোগী আদিত্যনাথ। তিনি বলেন যে তাঁকে ডাকলে, অনেকের ধর্মনিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন উঠে যাবে। শ্লেষের সুরে যোগী বলেন যে তিনি চান না অনেকের ধর্মনিরপেক্ষতা বিপদে পড়ে যাক। তবে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে তিনি নিশ্চিত করবেন যে সরকারি প্রকল্পের সুযোগ সবাই পাক কোনও জাতি, ধর্ম, বর্ণ না দেখে বলে জানান যোগী। বিজেপি নেতা বলেন যে টুপি পরে রোজা-ইফতার করাই ধর্মনিরপেক্ষতা নয়। তাঁর দাবি, এসব এখন মানুষ বুঝে গেছে।

তবে মুখ‍্যমন্ত্রীর এই মন্তব্যে অখুশি সমাজবাদী পার্টি। মুখপাত্র পবন পাণ্ডে বলেন যে যোগী সবার মুখ্যমন্ত্রী, শুধু হিন্দুদের নয়। মুখ্যমন্ত্রীর ভাষা পরিশালীত নয় ও সংবিধানের পরিপন্থী বলে অভিযোগ করেন তিনি।

You might also like
Leave a Comment