সব খবর সবার আগে।

ধ্বংস হবে দিল্লি থেকে অরুণাচলের বিস্তীর্ণ অঞ্চল! সামনেই আসছে ঘোর বিপদ!

পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে যাবে দিল্লি! অরুণাচল থেকে পাকিস্তান সমস্তকিছুই তছনছ হয়ে যাবে। মৃত্যু হবে কয়েক কোটি মানুষের। হিমালয় পার্বত্য অঞ্চলে এরকমই ধ্বংসাত্মক ভূমিকম্পের সম্ভাবনা জানালেন ভূতাত্ত্বিক ও ঐতিহাসিকরা! গত আগস্ট মাসে সিসমোলজিকাল রিসার্চ লেটার্স জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণায় বলা হয়েছে এমন এক ভূমিকম্প এই অঞ্চলে আসতে চলেছে যার রিখটার স্কেলের মাত্রা পৌঁছতে পারে ৮ বা তারও উপরে। গবেষকরা হিমালয় অঞ্চলে প্রাগৈতিহাসিক ভূমিকম্পগুলোর আকার এবং সময় নির্ধারণ করে তার ভিত্তিতেই ভবিষ্যতের ঝুঁকির সম্ভাবনা জানিয়েছেন।

তারা মাটি বিশ্লেষণ করেছেন সেইসঙ্গে রেডিও কার্বন ও কাঠামোগত বিশ্লেষণ এবং স্ট্রেগ্রিগ্রাফিক বিশ্লেষণ ইত্যাদি মৌলিক ভূতাত্ত্বিক নীতিগুলি ব্যবহার করেছেন। সেখানেই জানা গিয়েছে এই ভয়াবহ তথ্য। তারা বলছেন যে পূর্ব হিমালয়ের আকৃতি বড় মাপের বেশ কয়েকটি ভূমিকম্প হতে পারে এবং এর পরেই আসবে সেই মহা ভূমিকম্প ভারত ও পাকিস্তানের বিস্তীর্ণ অঞ্চল কে নিশ্চিহ্ন করে দেবে!

গবেষণাপত্রটির অন্যতম লেখক স্টিভেন জি ওয়েসনোস্কি জানিয়েছেন তাঁরা জানতে পেরেছেন,এই হিমালয়ের আর্কে অতীতে বড় বড় অনেক ভূমিকম্প হয়েছে। এখানেই অনেক বড় ভূমিকম্পের উৎসস্থল ছিল। তাদের বৈজ্ঞানিক মডেল জানাচ্ছে যে ভূমিকম্প গুলি ফের দেখা দেবে এবং সেই দেখা দেওয়ার আর বেশি দেরি নেই। হয়তো আর ১০০ বছরের মধ্যেই এই মহা ভূমিকম্প আঘাত হানবে এই বিস্তীর্ণ অঞ্চলজুড়ে।এই অঞ্চল ঘিরে রয়েছে ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, চিন, ভুটানের মতো জনবহুল ও ভারি জনঘনত্বের দেশ। ফলে কোটি কোটি মানুষ জীবন হারাবেন এবং হয়তো অনেক জায়গায়ই চিরতরে নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে।

এর আগে উপগ্রহ পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে জানা গিয়েছিল যে হিমালয় পার্বত্য অঞ্চলে বহু জায়গাতেই চাপ জমা হচ্ছে। তবে ওয়েসমনস্কি বলছেন যে এই উপগ্রহ পর্যবেক্ষণের সীমাবদ্ধতা রয়েছে। সক্রিয় ভূমিকম্পের চ্যুতি রেখা গুলির অবস্থান উপগ্রহ পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে সনাক্ত করা গেলেও অতীতের কোনো ভূমিকম্পের তথ্য কিন্তু উপগ্রহ পর্যবেক্ষণ দিতে পারবে না। তবে উপগ্রহ পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে যে তথ্য পাওয়া গিয়েছে এবং বর্তমানে যে প্রাগৈতিহাসিক ভূমিকম্পের সময় ও আকার পর্যবেক্ষণ নিয়ে যে গবেষণা করা হয়েছে তা মিলিয়ে দেখা যাচ্ছে যে এই এলাকাগুলিতে যথেষ্ট চাপ জমা হচ্ছে।

উত্তর ভারত গত চার মাসে বেশ কয়েকটি ছোট মাত্রার ভূমিকম্প হয়েছে। তবে এই ছোট ছোট ভূমিকম্পের সঙ্গে আগামী সেই মহা ভূমিকম্পের কোন নিয়মতান্ত্রিক সম্পর্ক এখনো খুঁজে পাওয়া যায়নি। তবে মহাভূমিকম্প যে আসতে চলেছে এ কথা তারা নিশ্চিত করে বলতে পারছেন।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...