সব খবর সবার আগে।

ভারতে অক্সফোর্ডের তৈরি টিকার দ্বিতীয় ও তৃতীয় পর্যায়ের হিউম্যান ট্রায়াল হতে চলেছে সিরামে

এবার অক্সফোর্ডের তৈরি করোনা প্রতিষেধক ‘কোভিশিল্ড’-এর দ্বিতীয় ও তৃতীয় পর্যায়ের হিউম্যান ট্রায়ালের অনুমোদন পেতে চলেছে বিশ্বের বৃহত্তম ভ্যাকসিন উৎপাদনকারী সংস্থা পুণের সিরাম ইনস্টিটিউট।

জানা গেছে, সিরাম ইনস্টিটিউটের গবেষণার ওপর নজর রাখছে একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি। সম্প্রতি, সেই কমিটির কাছে করোনা ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ও তৃতীয় পর্যায়ের হিউম্যান ট্রায়ালের জন্য অনুমতি চেয়ে আবেদন করে সংস্থা। কমিটির সদস্যরা তাতে রাজি হয়েছেন এবং যত দ্রুত সম্ভব সিরাম ইনস্টিটিউটকে ট্রায়াল শুরু করার অনুমতি দিতে দেশের ড্রাগ কন্ট্রোলারের কাছে আবেদন করতে চলেছেন। সেখান থেকে অনুমতি এলেই শুরু হয়ে যাবে প্রয়োগ।

এই হিউম্যান ট্রায়ালে অংশ নিতে চলেছেন ১৭টি শহরের মোট ১৬০০ জন স্বেচ্ছাসেবক। যেখানে প্রত্যেকের বয়স হতে হবে ১৮ বছরের ওপরে। অক্সফোর্ডের তৈরি এই ‘কোভিশিল্ড’ ভ্যাকসিন যদি ইতিবাচক ফলাফল দেয় তবে ভবিষ্যতে এই ভ্যাকসিনের গণ-উৎপাদন শুরু করবে সিরাম ইনস্টিটিউট। যার দাম রাখা হবে এক হাজার টাকার মধ্যে।

প্রসঙ্গত, পুণের সিরাম ইনস্টিটিউট প্রতি বছর প্রচুর ওষুধ তৈরি এবং বিক্রি করেন। এখন, ব্রিটিশ-সুইডিশ ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা অ্যাস্ট্রাজেনেকার-এর সঙ্গে মিলিতভাবে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের তৈরি এই ভ্যাকসিন উৎপাদনে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে এই সংস্থা।

You might also like
Leave a Comment