সব খবর সবার আগে।

আপনার মত দশ জন ডাক্তারকে দাঁড় করিয়ে দিতে পারি! স্বাস্থ্যকর্মী কে হুমকি শিবসেনা নেত্রী’র

করোনা সঙ্কটে যাঁরা দেশবাসীর শেষ ভরসা সেই স্বাস্থ্যকর্মীদেরই এবার হুমকি দিয়ে বসলেন শিবসেনা নেত্রী সন্ধ্যা দোশি।

নাগরিক পরিচালিত ভগবতী হাসপাতালের স্বাস্থ্যসেবা কর্মীদের সঙ্গে শিবসেনা কর্পোরেশন ও শিক্ষা কমিটির চেয়ারম্যান সন্ধ্যা দোশির মধ্যে হাওয়া উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ের একটি ভিডিও সম্প্রতি ভাইরাল হয় নেট দুনিয়ায়। ভিডিওতে এক স্বাস্থ্যকর্মীকে ওই শিবসেনা নেত্রীকে বলতে শোনা গেছে তিনি নাকি করোনা রোগীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেছেন, তাই তার মত ১০ জন চিকিৎসককে দাড় করিয়ে দিতে পারবেন ওই নেত্রী।

একজন কর্পোরেটর এবং বৃহন্নুম্বাই মিউনিসিপাল কর্পোরেশনের (বিএমসি) শিক্ষা কমিটির দ্বিতীয়বারের চেয়ারম্যান সন্ধ্যা দোশিকে ভিডিওতে বলতে শোনা যায়, ” বেশি স্মার্ট সাজবেন না, ওই রোগীর সঙ্গে আপনার ব্যবহার ভাল ছিলনা। আমি আপনার মতো ১০ জন ডাক্তারকে এখানে হাসপাতালে দাঁড়াতে পারি” l

উল্লেখ্য চলতি সপ্তাহের মঙ্গলবার এই ঘটনা ঘটে। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে, ভগবতী হাসপাতালের স্বাস্থ্যসেবা কর্মীরা দোশির আচরণের প্রতিবাদ জানিয়ে পদত্যাগ করার হুমকি দিয়ে একটি পৃথক ভিডিও প্রকাশ করেন।  ভিডিওতে একজন ডাক্তার বলতে শোনা যায়, “আমরা নিয়মিত চাপের মধ্যে কাজ করছি এবং প্রতিদিন আমাদের সহকর্মীদের করোনাতে অসুস্থ হয়ে পড়তে দেখছি।  এই সমস্ত ক্ষেত্রে, কেউ যদি আমাদের নির্দিষ্ট রোগীর দিকে মনোযোগ দেওয়ার প্রত্যাশা করেন তবে এটি সম্ভব হবে না।  আমরা তাঁর কাছে অনুরোধ করছি তিনি যেন‌ও ১০ জন ডাক্তার নিয়ে আসেন। আমরা তাহলে পদত্যাগ করব।”

সূত্রের খবর, ভগবতী হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মীরা এবং শিবসেনা নেত্রী দোশি জানিয়েছেন তাদের মধ্যে বিষয়টি নিয়ে মিটমাট হয়ে গেছে।  ভগবতী হাসপাতালের কর্ণধার ডাঃ পি যোধব জানিয়েছেন, “বিষয়টি চিকিৎসক ও কর্পোরেটের মধ্যে সমাধান করা হয়েছে।  সমস্ত চিকিৎসক ডিউটিতে আছেন এবং ধর্মঘট বা পদত্যাগের প্রশ্নই আসে না।”

দোশি জানিয়েছেন, “আমার ওয়ার্ডের কোভিড -১৯ রোগীর সাথে অনুপযুক্ত আচরণের কারণে আমি ভগবতী হাসপাতালে গিয়েছিলাম।  আমার ওয়ার্ডে সর্বাধিক মামলা রয়েছে এবং সেগুলি পরিচালনা করা আমার দায়িত্ব।  তবে ভিডিওতে যা কিছু দেখা যাচ্ছে তা মুহুর্তের উত্তাপে ঘটেছে।  আমি ওই স্বাস্থ্য কর্মীর কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছি। পোস্ট যে, রোগী হাসপাতালে ভর্তি ছিল, আমি কর্মীদের কাছে ক্ষমা চেয়েছি।”

তবে এই ঘটনায় শিবসেনা সরকারকে বিঁধতে  ছাড়েনি বিজেপি। দোশির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছে তাঁরা।  বিএমপির কর্পোরেশন এবং বিএমসির শিক্ষা কমিটির সদস্য প্রতীক কার্পে বলেছেন, “এই জটিল সময়ে ডাক্তারদের সঙ্গে এই জাতীয় ভাষা অনাকাঙ্ক্ষিত, এবং দোশির সঙ্গে আসা ব্যক্তিটি কোভিড হসপিটালের ভিতরে করোনার এই ভয়াবহ সময়েও মাস্কে ঢাকেননি। ‌বিষয়টি নিয়ে ব্যবস্থা নিতে আমি বিএমসি চিফকে চিঠি দিয়েছি।”

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...