দেশ

পুজোতে ট্রেনে মিলছে বিশেষ খাবার, থাকছে বাঙালি খাবারের সম্ভার, মেনুতে পোলাও থেকে মুরগি, মাটনও

এর আগেও নবরাত্রি উপলক্ষ্যে দেশের নানান প্রান্তে প্রধানত নিরামিষ খাবারের আয়োজন করা হয়েছে রেলের তরফে। তবে এবার পুজোর ছুটিতে ভ্রমণমুখী বাঙালির কথা ভেবেই এবার রাজধানী, দুরন্ত এক্সপ্রেসের মতো ট্রেনগুলিতে বিশেষ বাঙালি খাবারের মেনু রাখার উদ্যোগ নিল আইআরসিটিসি বা ইন্ডিয়ান রেলওয়ে কেটারিং অ্যান্ড ট্যুরিজম কর্পোরেশন।

শুধুমাত্র ট্রেনেই নয়, হাওড়া, শিয়ালদহ, নিউ জলপাইগুড়ি, গুয়াহাটি, টাটানগর ও আসানসোল স্টেশনের নিজস্ব রেস্তরাঁ ও ফুড প্লাজ়ায় লুচি, নারকেল দিয়ে ছোলার ডাল, বেগুনি, মোচার চপ, বাসন্তী পোলাও, মাছের কালিয়া, মাটন কষা, চিকেন কারির মতো পদের এলাহি আয়োজন করেছে ওই সংস্থা।

গতকাল, সোমবার মহাষ্টমীতে যাঁরা রাজধানী বা দুরন্তে সফর করেছেন, তাঁদের জন্য এদিনের বিশেষ মেনুতে ছিল ঘি-ভাত, ভাজা মুগের ডাল, আলু-ফুলকপি-পনিরের তরকারি, চিকেন কারি এবং পায়েস। আজ, মঙ্গলবার মহানবমীতে ট্রেনের মেনুতে রয়েছে মটরশুঁটির পোলাও, আনাজ দিয়ে ডাল, পাঁচমিশেলি তরকারি, চিকেন কারি এবং শেষ পাতে রসগোল্লা।  আবার দশমীর দিনেও বিশেষ মেনুর ব্যবস্থা রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

আইআরসিটিসি-র নিজস্ব ফুড প্লাজায় নানান স্বাদের খাবারের স্বাদ নেওয়ার সুযোগ অনেক বেশি। এই সংস্থার হাওড়া, শিয়ালদহ, নিউ জলপাইগুড়ি, আসানসোল, টাটানগর ও গুয়াহাটির রেস্তোরাঁয় প্রাতরাশের জন্য থাকছে বিশেষ মেনু। এছাড়াও থাকছে বাংলা খাবারের পদ। রয়েছে বিশেষ থালি ও আলাকার্টে মেনুর ব্যবস্থাও। মেনুতে রয়েছে বাসমতী চালের ভাত, মুগের ডাল, আলুভাজা, বেগুনি, পটল পোস্ত, ধোঁকার ডালনা, মাটন কষা, চিকেন কারী। শেষ পাতে থাকছে চাটনি, মিষ্টি দই, বেকড মিহিদানা, রাজভোগ, রসগোল্লা। গোটা অক্টোবর জুড়েই এই বিশেষ মেনু মিলবে ওই সংস্থার রেস্তোরাঁগুলিতে।

আইআরসিটিসি সূত্রের খবর অনুযায়ী, করোনা পরিস্থিতির সময় দু’বছর ধরে বন্ধ থাকার পর রেস্তোরাঁগুলি এবার নতুন করে সেজে উঠেছে। দীর্ঘ সময় ঘরবন্দি থাকার পর মানুষ এবার বেড়াতে বেরোচ্ছে। সেই কারণেই এই ব্যবস্থা চালু করেছে তারা।

Related Articles

Back to top button