দেশ

বড় পদক্ষেপ! টাটা গোষ্ঠীর কাছে হস্তান্তরের পর এবার এক হতে চলেছে এয়ার ইন্ডিয়া-ভিস্তারা, জল্পনা তুঙ্গে

দেশের অন্যতম ঐতিহ্যবাহী ও প্রাচীন বিমান সংস্থা হল এয়ার ইন্ডিয়া। এবার এই বিমান সংস্থাই জুড়ে যেতে চলেছে ভিস্তারার সঙ্গে। এই নিয়ে শুরু হয়েছে জোর জল্পনা। মিডিয়ায় প্রকাশিত নানান রিপোর্ট অনুযায়ী, এই দুই সংস্থার সংযুক্তিকরণের বেশ সম্ভাবনা রয়েছে। দুই সংস্থার মধ্যে দীর্ঘদিন ধরেই কথাবার্তা চলছে বলে জানা গিয়েছে। এই কারণে দেশের অসামরিক বিমান পরিষেবা ক্ষেত্রে এই সংযোগের জল্পনা পুরোপুরি উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না একেবারেই।

গত বছরের অক্টোবর মাসে নিলাম হয় এয়ার ইন্ডিয়ার। কেন্দ্রের থেকে ১৮ হাজার কোটি টাকার বিনিময়ে টাটাদের হাতে চলে যায় এয়ার ইন্ডিয়া। এই বিমান সংস্থার গরিষ্ঠ অংশই কিনে নেয় টাটা গোষ্ঠী। এয়ার ইন্ডিয়ার এই হস্তান্তরের পরই বিমান পরিষেবার ক্ষেত্রে ব্যাপক পরিবর্তনের ডাক দেয় টাটারা।

নতুন ফ্লিট তৈরি থেকে শুরু করে খাবারের মানোন্নয়ন, সর্বোপরি বিমানের সংখ্যা বৃদ্ধি – টাটাদের হাত ধরে এয়ার ইন্ডিয়ার যে বদল আসবে, এমনটাই আশা করেছিলেন অনেকে। তবে বেশ কিছু সমস্যাও ছিল এক্ষেত্রে। বেতন কাঠামো স্থায়ী করার জন্যে ধর্মঘটে গিয়েছিলেন এয়ার ইন্ডিয়ার সদস্যরা। এমনকি, এয়ার ইন্ডিয়ার কর্মীদের কোয়ার্টার ছেড়ে দেওয়ারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। সব মিলিয়ে হস্তান্তরের পর বেশ পরিস্থিতি কিছুটা জলঘোলা।

এমন আবহে এবার শোনা যাচ্ছে যে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বিমান সংস্থা ভিস্তারার সঙ্গে শীঘ্রই জুড়ে যেতে পারে এয়ার ইন্ডিয়া। ভিস্তারার গরিষ্ঠ অংশের শেয়ারও টাটাদের হাতেই রয়েছে। টাটা গোষ্ঠীর হাতে ভিস্তারার ৫১ শতাংশ শেয়ার রয়েছে বর্তমানে। বাজারের শেয়ারের হিসাব অনুযায়ী ভিস্তারা এই মুহূর্তে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বিমান সংস্থা।

দেশের অসামরিক বিমান পরিষেবার ক্ষেত্রে একটি বৃহত্তম বিমান সংস্থা তৈরি করাই হল এই সংযুক্তিকরণের মূল উদ্দশ্য। ভিস্তারা এমনিতেই দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বিমান সংস্থা। আর এয়ার ইন্ডিয়াতেও ব্যাপক বদল আনার কথা বলেছে টাটা। এবার এই দুই সংস্থা এক হয়ে গেলে দেশের বিমানশিল্পের ক্ষেত্রে টাটাদের প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা যে বেশ কঠিন হয়ে পড়বে, তা বলাই বাহুল্য। এছাড়া এয়ার ইন্ডিয়ার ঘাড়ে বিপুল ঋণের বোঝাও রয়েছে। সংযুক্তিকরণ হলে খরচেও রাশ টানতে পারবে টাটা গোষ্ঠী। এবার দেখার যে এই দুই বিমান সংস্থা এক হয়ে যায় কী না!

Related Articles

Back to top button