দেশ

বাড়ছে ভর্তুকি, আর ১৯ টাকা নয়, এবার থেকে রান্নার গ্যাসে ভর্তুকি মিলবে ২৫০ টাকা, ঘোষণা মোদী সরকারের

রান্নার গ্যাসের দাম ১০০০ ছুঁই ছুঁই। এর জেরে সাধারণ মানুষের নাভিশ্বাস ওঠার জোগাড়। এর জেরে ক্ষোভও প্রকাশ করেছে জনগণ। সেই আঁচ বুঝেই এবার ফের রান্নার গ্যাসে ভর্তুকি ফেরানোর কথা ভাবছে মোদী সরকার।

রান্নার গ্যাসের দাম বৃদ্ধির জেরে কেন্দ্র সরকার জনপ্রিয়তা হারাচ্ছে, সেই আঁচ করেই এবার এমন সিদ্ধান্ত। আর ১৯ টাকা নয়, এবার রান্নার গ্যাসে ভর্তুকি মিলবে ২৫০ টাকা।

বাজারদরেই সাধারণ মানুষকে সিলিন্ডার কিনতে হয়। নিয়ম অনুযায়ী, সরকার সিলিন্ডার পিছু যা ভর্তুকি দেবে, তা জমা হবে গ্রাহকের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে। ভর্তুকি বাবদ ৫০০ টাকাও পেয়েছেন, এমন গ্রাহকও রয়েছেন। কিন্তু গত দু’বছর ধরে যেন সেই ভর্তুকি আর মিলছে না।

শহর কলকাতার গ্রাহকরা ভর্তুকির জেরে ১৯ টাকা পেলেও, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, হাওড়ার নানান অঞ্চলে কোনও ভর্তুকিই মেলে না। এদিকে রান্নার গ্যাসের দাম ১০০০ টাকার কাছাকাছি। উত্তরবঙ্গে তো কোনও কোনও জায়গায় গ্যাসের দাম ১০০০ ছাড়িয়েছে। এর জেরে প্রধানমন্ত্রী যে উজ্জ্বলা যোজনা চালু করেছিলেন, তাতে বিঘ্ন ঘটেছে। এই প্রকল্পে থাকা মানুষ একসময় সাধারণ গ্রাহকের চেয়ে ২০ টাকা বেশি ভর্তুকি পেতেন, কিন্তু এখন সব অতীত।

চলতি বছরের বাজেট প্রস্তাব পেশ করার সময় কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন রান্নার গ্যাসের ভর্তুকি বাবদ বরাদ্দ করেন ১২ হাজার ৯৯৫ কোটি টাকা। এর আগের বছর এই খাতে বরাদ্দ ছিল ৪০ হাজার ৯১৫ কোটি টাকা। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, কেন্দ্র যে ধীরে ধীরে রান্নার গ্যাসে ভর্তুকি তুলে দিতে চায়, বিপুল পরিমাণ বরাদ্দ হ্রাসে সেই পরিকল্পনাই স্পষ্ট হয়েছিল। প্রত্যেক মাসে, আবার কখনও মাসে দু’-তিনবার রান্নার গ্যাসের দাম বাড়িয়েছে কেন্দ্র।

এই মূল্যবৃদ্ধির জেরে মানুষ যে কেন্দ্র সরকারের উপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। তা টের পেয়েই ভর্তুকি ফেরানোর চিন্তাভাবনা শুরু করল মোদী সরকার। খুব শীঘ্রই গ্রাহকদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে রান্নার গ্যাসের ভর্তুকি বাবদ ঢুকতে পারে ২৫০ টাকা।

Related Articles

Back to top button