দেশ

শরীরে একাধিক ছুরির আঘাত, নির্মমভাবে কুপিয়ে খুন বিজেপির SC/ST সভাপতিকে, চাঞ্চল্য গোটা এলাকায়

কিছুদিন ধরেই তাঁকে হুমকি শানাচ্ছিল দুষ্কৃতীরা। সেই কারণে রাজ্য সরকারের তরফে তাঁকে একজন ব্যক্তিগত নিরাপত্তা রক্ষী দেওয়া হয়। কিন্তু সব চেষ্টাই বিফলে। শেষমেশ খুনই হলেন তামিলনাড়ুর (Tamil Nadu) বিজেপির SC/ST বিভাগের কেন্দ্রীয় জেলা সভাপতি বালাচন্দ্রন (Balachandran)।

ঘটনাটি ঘটেছে তামিলনাড়ুর রাজধানী চেন্নাইয়ের চিন্তাদ্রিপেট এলাকায়। সূত্রের খবর অনুযায়ী, বিগত কয়েকদিন ধরেই কিছু অজ্ঞাত পরিচয়ের নানান ব্যক্তি হুমকি দিচ্ছিল বিজেপি নেতাকে। এক প্রকার বাধ্য হয়েই রাজ্য সরকারের কাছে সাহায্য চান বালাচন্দ্রন। এরপর তাঁকে একজন ব্যক্তিগত নিরাপত্তা কর্মী প্রদান করে সরকার।

জানা যাচ্ছে, যে সময় বালাচন্দ্রনের ওপর হামলা হয়, সেই মুহূর্তে তিনি চা খেতে গিয়েছিলেন। সেই সময় সঙ্গে ছিলেন না নিরাপত্তা অফিসার। সেই সুযোগ নিয়েই নিজেদের পরিকল্পনা সেরে ফেলে দুষ্কৃতীরা। বিজেপি নেতার ওপর বারবার ছুরি দিয়ে আঘাত করার কারণে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় বালাচন্দ্রনের।

এই ঘটনায় গোটা এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনাস্থলে দ্রুত পৌঁছয় পুলিশ। পুলিশ সূত্রে খবর, তিনজন দুষ্কৃতী বাইকে করে এসে হামলা চালায় বালাচন্দ্রনের উপর। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, অতীতের কোনও শত্রুতার কারণেই এই খুন। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। ইতিমধ্যেই এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গেও কথা বলে তথ্য সংগ্রহ করছে পুলিশ।

বিজেপি নেতার খুনের ঘটনায় প্রশাসনকে দায়ী করে কটাক্ষ করেছে বিজেপি থেকে শুরু করে বিরোধী দলগুলি। রাজ্যের বিরোধী দলের এক নেতার বলেন, “বিগত বেশ কিছু দিনে ১৮টি খুনের মামলা সামনে এসেছে। কিন্তু পুলিশ প্রশাসন সব ক্ষেত্রে ব্যর্থ। বর্তমানে রাজ্যে আইন শৃঙ্খলা এবং মানুষের নিরাপত্তা ক্রমশ তলানীতে গিয়ে ঠেকেছে। সরকারের এগুলিকে গুরুত্ব সহকারে পর্যালোচনা করা উচিত”।

Related Articles

Back to top button