দেশ

সুখবর! খুচরো বাজারে এবার কমবে ভোজ্য তেলের দাম, আমদানি শুল্ক কমাল কেন্দ্র

পুজোর মুখে কিছুটা স্বস্তি। কেন্দ্রের তরফে পাম তেল, সয়া তেল ও সাদা তেলের আমদানি শুল্কে কাটছাঁট করা হল। আর এর ফলে খুচরো বাজারে ভোজ্য তেলের দাম খানিকটা হলেও কমবে বলে আশা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

আগে অপরিশোধিত পাম তেলের শুল্ক ছিল ১০ শতাংশ। তবে আজ, শনিবার কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছে, অপরিশোধিত পাম তেলের আমদানি শুল্ক কমিয়ে ২.৫ শতাংশ করা হয়েছে। একইভাবে অপরিশোধিত সয়া তেল এবং সাদা তেলের আমদানি শুল্ক ৭.৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ২.৫ শতাংশ করা হয়েছে। অন্যদিকে, রিফাইনড পাম তেল, সয়া তেল এবং সাদা তেলের শুল্ক হবে ৩২.৭৫ শতাংশ। এই নতুন হার আজ থেকেই কার্যকর হচ্ছে।

আরও পড়ুন- প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ৭১তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে মধ্যপ্রদেশে তৈরি হবে ১০৭০টি ‘নমো পার্ক’, জমি দিচ্ছে সরকার

এই বিষয়ে সোলভেন্ট এক্ট্যাক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়ার (এসইএ) এগজিকিউটিভ ডিরেক্টর বি ভি মেহতার তরফে সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে জানানো হয় যে কেন্দ্রের এই নতুন ঘোষণার ফলে কার্যক্ষেত্রে অপরিশোধিত পামতেল, সয়া তেল ও সাদা তেলের উপর শুল্কের পরিমাণ কমে দাঁড়িয়েছে ২৪.৭৫ শতাংশে। এর জেরে আমদানি শুল্কে কাটছাঁটের ফলে খুচরো বাজারে তেলের দাম কমতে পারে চার থেকে পাঁচ টাকা।

অতীতে দেখা গিয়েছে, ভারত আমদানি শুল্কে কাটছাঁট করায় আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম বেড়ে যায়। এই ফলে ভোজ্য তেলের দাম কমে যায় প্রায় দুই থেকে তিন টাকা। তবে বাজারের দর আরও কমানোর জন্য সরষের তেলের আমদানি শুল্ক কমানোর প্রয়োজন ছিল বলে মনে করছেন মেহতা।

প্রসঙ্গত, গত কয়ে বছরে ভারতে ভোজ্য তেলের দাম হু হু করে বেড়েছে। বছরখানেক আগেও এক লিটার সরষের তেলের দাম গড় দাম ছিল ১২০ টাকা। আর এখন তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭০ টাকায়। কোনও কোনও জায়গায় তো সরষের তেলের দাম ডবল সেঞ্চুরি ছাড়িয়েছে। তবে এবার আমদানি শুল্ক কাটছাঁট হওয়ায় ভোজ্য তেলের দাম খানিকটা লাঘব হবে বলেই আশাবাদী সংশ্লিষ্ট মহল।

Related Articles

Back to top button