দেশ

দাপাদাপি করে লাভ হল না! ত্রিপুরার ৩ আসনে ১০০০ এর থেকেও কম ভোট পেল তৃণমূল! মিমি-দেব ফিরলো শূন্য হাতে

ত্রিপুরার উপ নির্বাচন শেষে খালি হাতে ফিরতে হল তৃণমূল কংগ্রেসকে। চারটি উপ নির্বাচন কেন্দ্রের ফল ঘোষণা করা হলো। ডাহা ফেল করল তৃণমূল। তবে ভোটে জয় লাভের জন্য কোনরকম কসুর রাখেনি এই দল।

গত বিধানসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূলের জয় লাভের ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা পালন করেছিল প্রশান্ত কিশোরের সংস্থা আইপ্যাক। সেই সংস্থাই ত্রিপুরায় দায়িত্ব পেয়েছিল। এমনকি উপ নির্বাচনের আগে একের পর এক জনসভা করে ত্রিপুরা বাসির উদ্দেশ্যে একাধিক বার্তা পৌঁছে দিয়েছিলেন স্বয়ং অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। বাদ রাখেননি মিমি চক্রবর্তী থেকে শুরু করে দেব এবং অন্যান্য তারকারাও। তবুও লাভ হলো না।

চারটি উপ নির্বাচন কেন্দ্রে জয়লাভ তো দূর, তৃতীয় স্থানও পেল না এই দল। এমনকি চারটির মধ্যে তিনটি আসনে ১০০০ টি ভোটও পায়নি। কেন এভাবে মুখ থুবড়ে পড়ল তৃণমূল কংগ্রেস সে বিষয়ে এখনও সুস্পষ্টভাবে কিছু জানা যায়নি।

টাউন বড়দোয়ালি, আগরতলা এবং সুরমা কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থীরা ১০০০ ভোটের অনেক আগেই আটকে গেল। কেবলমাত্র যুবরাজনগর থেকে ১০৭৩টি ভোট পেয়েছেন মৃণালকান্তি দেব। টাউন বড়দোয়ালি থেকে তৃণমূলের প্রার্থী সংহিতা ভট্টাচার্য পান ৯৮৬ টি ভোট। এই কেন্দ্রে জিতলেন ত্রিপুরার বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মানিক সাহা। আগরতলা এবং সুরমা কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী মান্না দেব এবং অর্জুন নমশূদ্র পেলেন ৮৪২ এবং ৪৬৯টি ভোট। তবে তৃণমূলের এই দুর্দশার মাঝে বিজেপি তিনটিতে দারুণ জয় পেয়েছে। কংগ্রেস পেয়েছে মাত্র একটি কেন্দ্র।

Related Articles

Back to top button