সব খবর সবার আগে।

“জাতীয় নীতি হিসাবে সন্ত্রাসকে ব্যবহার করছে পাকিস্তান”, আন্তর্জাতিক মহলে তোপ দাগলেন বেঙ্কাইয়া নাইডু!

পাকিস্তানের সঙ্গে সন্ত্রাসবাদের যোগ বরাবরের। আন্তর্জাতিক মহলে পাকিস্তানকে সন্ত্রাসবাদ বিষয়ে পৃথিবীর বাকি দেশগুলো বরাবরই কোণঠাসা করে এসেছে কেবলমাত্র চীন ছাড়া। পাকিস্তানের সন্ত্রাসবাদে বর্তমানে চীন পরোক্ষভাবে মদত দেয় এরকমটাই উঠেছে অভিযোগ। এবার পাকিস্তানকে সন্ত্রাসবাদ প্রসঙ্গেই একহাত নিলেন ভারতের উপরাষ্ট্রপতি এম ভেঙ্কাইয়া নাইডু।

আজ সোমবার সাংহাই কো-অপারেশন অর্গানাইজেশন আয়োজিত রাষ্ট্রপ্রধানদের নিয়ে গঠিত কাউন্সিলের বৈঠকে পাকিস্তানের উদ্দেশ্যে দেখেছেন ভারতের উপরাষ্ট্রপতি। সেখানেই এম ভেঙ্কাইয়া নাইডু অভিযোগ জানিয়েছেন যে পাকিস্তান সন্ত্রাসকে জাতীয় নীতি হিসাবে ব্যবহার করছে তাই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সম্মিলিত প্রতিরোধ গড়ে তোলা দরকার।

আজকের ভার্চুয়াল বৈঠকে ভারতের উপরাষ্ট্রপতি চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছিলেন। তিনি আরো জানিয়েছেন যে পাকিস্তানের এই সন্ত্রাসবাদকে মদত দেওয়ার যে প্রবৃত্তি তা কাউন্সিলের শর্তাবলীর পরিপন্থী এবং যে সদস্য রাষ্ট্রগুলো রয়েছে তাদের সার্বভৌমত্ব এবং আঞ্চলিক ঐক্যের পক্ষে অত্যন্ত বিপদজনক।
এছাড়াও সীমান্ত সংলগ্ন এলাকায় চীন যে সড়ক নির্মাণ প্রকল্প নিয়েছে তার উদ্দেশ্য কটাক্ষ করেছেন নাইডু। তিনি বলেছেন যে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যিক স্থিতি বজায় রাখতে হলে প্রতিটি সদস্য দেশকে বহুস্তরীয় বাণিজ্য নীতি অনুসরণ করতে হবে।

আজকের বৈঠকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান অনুপস্থিত ছিলেন এবং তার বদলে অংশগ্রহণ করেছিলেন পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রকের দায়িত্বে থাকা সংসদীয় সচিব আন্দলিব আব্বাস। এছাড়াও রাশিয়া,চীন, কাজাখস্তান, কিরঘিস্তান, তাজিকিস্তান ও উজবেকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীরা এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। স্বাভাবিকভাবেই ভেঙ্কাইয়া নাইডু যখন পাকিস্তান এবং চীনের বিরুদ্ধে তোপ দাগছিলেন তখন এই দুই দেশের প্রতিনিধিরা কোনরকম টুঁ শব্দটিও করেননি।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...