দেশ

করোনার প্রতিনিয়ত রূপ পরিবর্তনে সংকটে তরুণ প্রজন্ম! জানালেন আইসিএমআর প্রধান

করোনার প্রথম দফায় সবথেকে বেশি আক্রান্ত হন বৃদ্ধ-বৃদ্ধারা। দ্বিতীয় দফায় অবশ্য সেই রকম কোনও ছাড় নেই। কম বয়সী, তরুণ-তরুণী থেকে মাঝবয়সী সবাই আক্রান্ত হচ্ছেন এই মারণ রোগে। তবে পরিসংখ্যান বলছে করোনার দ্বিতীয় দফায় সবচেয়ে বেশি পরিমাণ আক্রান্ত তরুণ প্রজন্ম।  করোনার আগত তৃতীয় দফায় বেশি করে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি শিশুদের।

বর্তমানে ভারতে এমনিতেই হু হু করে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। অপ্রতুলতা অক্সিজেন, ওষুধ, প্রতিষেধকের। কিছুতেই নিয়ন্ত্রণে আনা যাচ্ছে না বর্তমান পরিস্থিতিকে।

আরও পড়ুন- করোনা নিয়ে নয়া নির্দেশিকা কেন্দ্রের! এবার সমস্ত হাসপাতালেই ‘র‍্যাট’ পদ্ধতিতে হবে করোনা পরীক্ষা

আর এই অবস্থাতেই মঙ্গলবার সংবাদ মাধ্যমের কাছে একটি বিবৃতি দিয়ে আইসিএমআর-এর প্রধান ডঃ বলরাম ভার্গব জানিয়েছেন, প্রতিনিয়ত করোনার রুপ পরিবর্তনের কারণে ভারতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে সবচেয়ে বেশি সংক্রামিত হচ্ছে তরুণ প্রজন্ম।

এর পিছনে কারণ ব্যাখ্যা করেন তিনি। তিনি বলেন, “করোনার দ্বিতীয় ধাক্কায় তরুণ প্রজন্মের বেশি আক্রান্ত হওয়ার পিছনে সম্ভাব্য দুটি কারণ রয়েছে। যেগুলি হল, করোনার নয়া ভ্যারিয়েন্ট দেশে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ায় তা তরুণদের শরীরের উপর প্রভাব ফেলছে। যার ফলে অনেক কম সময়ের মধ্যেই বেশিরভাগ যুবক যুবতী এই রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন।”

আরও পড়ুন- ফের মানবিক সোনু! করোনা আক্রান্তদের পাশে দাঁড়াতে ফ্রান্স থেকে অক্সিজেন প্লান্ট আনছেন অভিনেতা

এদিনই বৈঠকের আইসিএমআর-এর প্রধান আর‌ও বলেন করোনার প্রথম এবং দ্বিতীয় ঢেউয়ের মধ্যে বয়সের খুব বেশি পার্থক্য নেই। তিনি বলেন, “আমরা এটি নিয়ে আগস্ট মাস পর্যন্ত পরিস্থিতি বিশ্লেষণ করেছি। তাতে ৪৫ বছরের বেশি বয়সী লোকেদের মৃত্যুর ঝুঁকির সম্ভাবনা বেশি। এছাড়াও হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের মধ্যে মৃত্যুর হার প্রায় ৯.৭ শতাংশ।”

Related Articles

Back to top button