প্রযুক্তি

কৃষি আইনের জেরে লাভবান হবে জিও, মিথ্যে প্রচার করায় এয়ারটেল ও ভোডাফোনের বিরুদ্ধে তোপ জিও-র

ভোডাফোন ও এয়ারটেলের সঙ্গে বরাবরই প্রতিযোগিতা লেগে থাকে জিও-র। টেলিকম কোম্পানিগুলির মধ্যে এ ঘটনা নতুন নয়। কিন্তু এবার এই যুদ্ধে লাগল কৃষি আইনের ছোঁয়া। জানা গিয়েছে, সম্প্রতিই জিও একটি চিঠি দিয়েছে TRAI-কে। এই চিঠিতে লেখা হয়েছে যে জিও-র নামে মিথ্যে প্রচার চালাচ্ছে তাদের প্রধান দুই প্রতিপক্ষ সংস্থা এয়ারটেল ও ভোডাফোন। তাদের দাবী, দেশে নতুন কৃষি আইন এলে এর দ্বারা লাভবান হবে জিও। এর ফলে ইতিমধ্যেই প্রচুর গ্রাহক জিও পরিষেবা ছাড়ার অনুরোধ জানিয়েছেন।

গত ১০ই ডিসেম্বরে লেখা ওই চিঠিতে জিও-র পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, কিছুদিন ধরেই ভারতী এয়ারটেল ও ভোডাফোন আইডিয়ার মতো টেলিকম সংস্থা মিথ্যে প্রচার ছড়াচ্ছে। এর প্রভাব পড়েছে ওই সংস্থার গ্রাহকদের মধ্যে। অনেক গ্রাহকই জিও সংযোগ বাতিলের আবেদন জানিয়েছেন। এই বিষয়ে রীতিমতো ক্ষুব্ধ গ্রাহকেরা। তাদের অভিযোগ, পরিষেবা নিয়ে তাদের কোনও সমস্যা নেই, কিন্তু কৃষি সংক্রান্ত আইনের জন্যই তাঁরা এই সংযোগ ছাড়তে চান। এমন পরিস্থিতির মুখে দাঁড়িয়ে জিও-র পক্ষ থেকে TRAI-কে অনুরোধ জানানো হয়েছে তাঁরা যেন ওই সংস্থাগুলির বিরুদ্ধে দ্রুত কোনও পদক্ষেপ গ্রহণ করে।

কিন্তু এদিকে মুকেশ আম্বানির সংস্থার এই অভিযোগ সম্পূর্ণ নাকোচ করা হয়েছে এই দুই টেলিকম সংস্থার তরফ থেকে। ভারতী এয়ারটেল জানিয়েছে, জিও-র এই অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। ভোডাফোনের তরফ থেকেও এই অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলা হয়েছে। তারা জানিয়েছে, তারা নৈতিকভাবে ব্যবসা চালাতে বিশ্বাসী।

প্রসঙ্গত, গত ২০ দিন ধরে দিল্লিতে নতুন কৃষি আইন প্রত্যাহারের জন্য বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন কৃষকেরা। প্রবল শীত উপেক্ষা করেও এই বিক্ষোভে অনড় কৃষকেরা। হরিয়ানা, পঞ্জাব-সহ দেশের অন্যান্য রাজ্যের কৃষক সংগঠনগুলি এই বিক্ষোভে সামিল হয়েছেন।

Related Articles

Back to top button