সব খবর সবার আগে।

হোয়াটসঅ্যাপে নতুন প্রাইভেসি পলিসির বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের, সুপ্রিম কোর্টের তীব্র ভর্ৎসনার মুখে মেসেজিং অ্যাপ

নতুন প্রাইভেসি পলিসি শুরু করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ার মেসেজিং অ্যাপ হোয়াটসঅ্যাপ। গ্রাহকদের পর এবার সুপ্রিম কোর্টেরও তীব্র ভর্ৎসনার মুখে পড়ল এই মেসেজিং অ্যাপ। তাদের এই প্রাইভেসি পলিসি সংক্রান্ত মামলায় হোয়াটসঅ্যাপকে আদালতের পক্ষ থেকে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয় যে সাধারণ মানুষ নিজেদের ব্যক্তিগত তথ্য ও গোপনীয়তা নিয়ে বিশেষ চিন্তিত। তাই এক্ষেত্রে শীর্ষ আদালত হস্তক্ষেপ করতে বাধ্য। ফেসবুক বা হোয়াটসঅ্যাপ যত দামী সংস্থাই হোক না কেন, সাধারণ মানুষদের গোপনীয়তার গুরুত্ব তাদের দিতেই হবে।

এই বছরের শুরুতেই নিজেদের প্রাইভেসি পলিসিতে নতুন নিয়ম আনে হোয়াটসঅ্যাপ। বলা হয় যে, এই পলিসি সব ইউজারকে মানতেই হবে। নাহলে এই মেসেজিং অ্যাপ ডিলিট হয়ে যেতে পারে। কিন্তু এই প্রাইভেসি পলিসি নিয়ে অনেকের মনেই সংশয় জাগে। ইউজারদের ধারণা, এই পলিসির মাধ্যমে তাদের ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস হয়ে যাবে। আবাত অনেকে এই ভয়ও পান যে, এই পলিসি মানলে তাদের হোয়াটসঅ্যাপের তথ্য ফেসবুকে পৌঁছে যেতে অয়ারে। গুগল সার্চে নাকি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের তথ্য মিলছে।

এই ভয়ে অনেকেই হোয়াটসঅ্যাপ ছেড়ে টেলিগ্রাম বা সিগন্যালের মতো মেসেজিং অ্যাপ ব্যবহার শুরু করেছেন। এরপর হোয়াটসঅ্যাপের তরফে বিবৃতি দিয়ে জানানো হয় যে এই পলিসির দ্বারা ইউজারদের কোনওরকম ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস হবে না। কিন্তু তাতে কাজ হয়নি। তাই একরকম বাধ্য হয়ে এই প্রাইভেসি পলিসি স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেয় হোয়াটসঅ্যাপ। তবে তা শুধুমাত্র মে মাস পর্যন্তই। এরপর ফের নতুন প্রাইভেসি পলিসিতে ফিরবে এই মেসেজিং অ্যাপ।

হোয়াটসঅ্যাপের এই প্রাইভেসি পলিসি রুখতে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন এক সমাজকর্মী। তাঁর দায়ের করা মামলার ভিত্তিতেই হোয়াটসঅ্যাপকে ভর্ৎসনা করে সুপ্রিম কোর্ট। এদিন প্রধান বিচারপতি বোবদে বলেন যে হোয়াটসঅ্যাপ ২-৩ ট্রিলিয়নের সংস্থা হতে পারে, কিন্তু সাধারণ মানুষ নিজের গোপনীয়তাকে গুরুত্ব দেয়। কেউ যদি অন্য কাউকে কোনও মেসেজ পাঠায়, তাহলে যদি তা ফেসবুকে শেয়ার হয়ে যায়, তাহলে মানুষ ভয় পাবেই। মানুষের গোপনীয়তা রক্ষা করা ও তাতে গুরুত্ব দেওয়া তাদের কর্তব্য বলেই জানান সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি।

_taboola.push({mode:'thumbnails-a', container:'taboola-below-article', placement:'below-article', target_type: 'mix'}); window._taboola = window._taboola || []; _taboola.push({mode:'thumbnails-rr', container:'taboola-below-article-second', placement:'below-article-2nd', target_type: 'mix'});
You might also like
Comments
Loading...