রাজ্য

অস্ত্র থাকলেও তা ব্যবহারের অর্ডার নেই, জানালেন দায়িত্ব প্রাপ্ত রাজ্য পুলিশ।

আজ প্রথম দফা ভোট চলছে উত্তরবঙ্গের কোচবিহার এবং আলিপুরদুয়ারে। নির্বাচন কমিশন শান্তিপূর্ণ ভোটের কথা জানালেও উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে কোচবিহার জেলার দিনহাটা মহকুমার বেশ কয়েকটি ভোট গ্রহণ কেন্দ্র। দিনহাটার রসমন্ডা স্কুলের বুথটিতে সকালে নির্বিঘ্নে ভোট গ্রহণ শুরু হলেও এক-দুটি ভোট পরতে না পরতেই উত্তপ্ত হয়ে উঠে সেই এলাকা৷ সংঘর্ষ বাঁধে বিজেপি এবং তৃণমূল কর্মীদের মাঝে।

এই বুথের নিরাপত্তার দায়িত্বে কোনো কেন্দ্রীয় বাহিনী নিযুক্ত করা হয়নি। যে রাজ্য সরকারি পুলিশ এই বুথের নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন তারাও বর্তমানে রয়েছেন আতঙ্কে। সূত্রের খবর, ভোট গ্রহণ শুরু হওয়া মাত্রই সেই স্থানে উপস্থিত হয় কিছু দুষ্কৃতি। স্থানীয় তৃণমূল কর্মীরা জানান যে তারা আদতে বিজেপি সমর্থক। এরপরই সংঘর্ষ বাঁধে এই দুই দলের কর্মীদের মধ্যে। ক্রমশ পরিস্থিতি এতোটাই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে যে ভোট গ্রহণ বন্ধ করে স্কুলের গেটে তালা লাগিয়ে দিতে বাধ্য হন নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশ কর্মীরা।

সকালে যেখানে ভোটদাতাদের লম্বা লাইন দেখা যায়, এই ঘটনার জেরে সেই স্থানই হয়ে পরে জনশূন্য। যদিও নির্বাচন কমিশন জানান যে, ভোট সেখানে শান্তিপূর্ণ ভাবেই হচ্ছে৷ তথাপি সেই বুথের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা রাজ্য পুলিশের কথায়, তারা এখনও রয়েছেন আতঙ্কে। তাদের নিকট অস্ত্র থাকলেও তা কার্যত অহেতুক। কারণ সেই অস্ত্র ব্যবহারের কোনো অর্ডার বা অনুমতিই তাদের নেই। এমতাবস্থায় তারা কি করে কোনো উত্তপ্ত পরিস্থিতি সামাল দিয়ে নির্বিঘ্নে নিজেদের বাড়ি পৌঁছাবেন তা নিয়েই আতঙ্কে প্রহর গুনছেন বুথের ভোট কর্মী সহ পুলিশেরাও।

Related Articles

Back to top button